হেলাল উদ্দিন, টেকনাফ :
টেকনাফে ফের মালয়েশিয়া যাওয়ার প্রস্তুতিকালে থেকে ১শ ১৫ জন রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ ও শিশুকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ৫ এপ্রিল বিকাল সাড়ে ৫ টারদিকে উপজেলার বাহারছড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের কর্মকর্তা মোঃ আনোয়ার হোসেন রোহিঙ্গারা সংঘবদ্ধ হয়ে সাগরপথে মালয়েশিয়া গমনের জন্য গন্তব্যে যাওয়ার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বাহারছড়া-হোয়াইক্যং পাহাড়ী ঢালাপথের বাহারছড়া পয়েন্ট অভিযান চালিয়ে ৩৯ নারী, ২৬ শিশুসহ ১শ ১৫ জন মালয়েশিয়াগামীকে উদ্ধার করে। এসময় কোন দালালকে আটক করা সম্ভব হয়নি।
উদ্ধারকৃত রোহিঙ্গারা দমদমিয়া,জাদিমোরা, শালবাগান, নয়াপাড়া, মোচনী, লেদা, আলীখালী, ঊনছিপ্রাং, শামলাপুর, পালংখালী এবং থাইংখালী ক্যাম্পে বসবাসকারি।
আটককৃতরা জানান, দালালের মাধ্যমে অল্প টাকায় বঙ্গোপসাগরের বাহারছড়া কচ্ছপিয়া পয়েন্ড দ দিয়ে মালয়েশিয়া গমনের জন্য বোটযোগে শীপে উঠার জন্য যাচ্ছিল।
বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের তদন্ত কর্মকর্তা মোঃ আনোয়ার হোসেন জানান, উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে উদ্ধারকৃত রোহিঙ্গাদের ব্যাপারে পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।
এদিকে বাংলাদেশে নতুন করে রোহিঙ্গা আসার পর চলিত মৌসমে ফের সাগর পথে মানব পাচার বেড়ে গেছে। অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাত্রাকালে বারবারের মতোই যাত্রীরা উদ্ধার হলেও ধরাছোয়ার বাইরে থেকে গেছে মানবপাচারের মূলহোতারা। চিহ্নিত মানব পাচারকারীদের আটক করে শাস্তির দাবী জানিয়েছেন বোদ্ধা মহল। না হয় সাগরপথে মালয়েশিয়া যাত্রাকালে অতিথের মতো বড় ধরণের দূর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে মনে করেন তারা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •