প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

প্রথম আলো বন্ধুসভা আয়োজিত কক্সবাজার বিতর্ক উৎসব-২০১৯ এর মহেশখালী পর্ব বৃহস্পতিবার মহেশখালী আদর্শ উচ্চবিদ্যালয় ভেন্যুতে অনুষ্টিত হয়েছে। সকাল ১০টায় জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্যদিয়ে কর্মসূচি শুরু হয়। উদ্বোধনী অনুষ্টানে বক্তব্য দেন প্রথম আলো কক্সবাজার আঞ্চলিক অফিস প্রধান আব্দুল কুদ্দুস রানা, কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের সহকারী প্রধানশিক্ষক মো. নাছির উদ্দিন, মহেশখালী আদর্শ উচ্চবিদ্যালয়ের সহকারী প্রধানশিক্ষক আবুল কালাম আজাদ। বিতর্ক উৎসব আয়োজনে সহযোগিতা দিচ্ছে- কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ও দি ঢাকা মার্কেন্টাইল কো-অপারেটিভ ব্যাংক লিমিটেড।

এরপর শুরু হয় আটটি স্কুল দল নিয়ে বিতর্ক উৎসব। বিতর্কে অংশ নেয় বড় মহেশখালী বালিকা উচ্চবিদ্যালয়, মহেশখালী আইল্যান্ড হাইস্কুল, কুতুবজোম আদর্শ উচ্চবিদ্যালয়, কালারমারছড়া উচ্চবিদ্যালয়, হোয়ানক বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয়, গোরকঘাটা উচ্চবিদ্যালয়, মহেশখালী আদর্শ উচ্চবিদ্যালয় ও মহেশখালী সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়।

বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন, রামু কেন্টনম্যান্ট ইংলিশ স্কুলের সহকারী শিক্ষক মো. সাইফুল্লাহ, রামু ক্যান্টনম্যান্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক মো. হাবিব উল্লাহ, প্রথম আলো বন্ধুসভার সহসভাপতি আরিফুর রহমান। অনুষ্টান সঞ্চালনা করেন বন্ধুসভার সভাপতি ইব্রাহিম খলিল।

বিতর্কে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মহেশখালী আইল্যান্ড হাইস্কুল। রানার আপ হয়েছে বড় মহেশখালী বালিকা উচ্চবিদ্যালয়। তৃতীয় হয়েছে মহেশখালী আদর্শ উচ্চবিদ্যালয়। সেরা বিতার্কিক নির্বাচিত হয়েছে বড় মহেশখালী বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের সাবিনা ইয়াসমিন।

প্রথম আলো কক্সবাজার আঞ্চলিক অফিস প্রধান আব্দুল কুদ্দুস রানার সভাপতিত্বে অনুষ্টিত সমাপনী ও পুরুস্কার বিতরণী অনুষ্টানে প্রধান অতিথি ছিলেন কক্সবাজার-২ ( মহেশখালী-কুতুবদিয়া) আসনের সাংসদ আশেক উল্লাহ রফিক। প্রধান আলোচক ছিলেন, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে. কর্ণেল (অব.) ফোরকান আহমেদ।

সাংসদ আশেক উল্লাহ রফিক বলেন, বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কক্সবাজারে উন্নয়নে খুবই আন্তরিক। এরমধ্যে মহেশখালী সবচেয়ে বেশি অগ্রাধিকার পাচ্ছে। মহেশখালীতে তাপবিদ্যুৎকেন্দ্র, এলএনজি টার্মিনাল, গভীর সমুদ্র বন্দর, বিদ্যুৎ কেন্দ্রসহ নানা মেগাপ্রকল্পসহ তিন লাখ কোটি টাকার কাজের বাস্তবায়ন হচ্ছে। মহেশখালী অচিরেই সিঙ্গাপুরের মতো শহরে পরিণত হবে। সিঙ্গাপুরের মতো শহরে বসতি করতে হলে স্থানীয়দেরও দক্ষতা অর্জন করতে হবে। এক্ষেত্রে বিতর্ক চর্চার বিকল্প নেই।

কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে. কর্নেল (অব.) ফোরকান আহমেদ বলেন, উন্নয়ন কর্মকান্ডের পাশাপাশি মহেশখালীর শিক্ষার্থীদেরও মেধা ও মননে এগিয়ে যেতে হবে। পর্যটন রাজধানী কক্সবাজারের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খুবই আন্তরিক। ইতোমধ্যে তিনি কক্সবাজারের উন্নয়নে ২৫টি মেগাউন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছেন।

শেষে বিজয়ীদের হাতে সনদ ও ক্রেস্ট তুলে দেন অতিথিরা।

বন্ধুসভার সভাপতি ইব্রাহিম খলিল জানান, এবারের আসরে উপজেলা পর্যায়ে তিনটি উৎসব হচ্ছে। গত ২১ মার্চ অনুষ্টিত হয়েছে, ঈদগাঁও, চকরিয়া ও পেকুয়া উপজেলা নিয়ে ঈদগাঁও পর্ব বিতর্ক উৎসব।

আগামী ৭ এপ্রিল অনুষ্টিত হবে রামু, উখিয়া ও টেকনাফ উপজেলা নিয়ে রামু বিতর্ক উৎসব।

তিন উৎসবের চ্যাম্পিয়ন, রানার আপ ও তৃতীয় স্থান অজনকারী ৯ টি স্কুলের সাথে কক্সবাজার শহরের ৬ টি স্কুল এবং জেলার ৮ টি কলেজ নিয়ে এপ্রিলের মাঝামাঝি সময়ে অনুষ্টিত হবে দুইদিন ব্যাপী জেলা বিতর্ক উৎসব।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •