মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

গত ১ এপ্রিল থেকে শুরু হওয়া এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় কক্সবাজার জেলার ৩১ টি পরীক্ষা কেন্দ্রে শান্তিপূর্ণ, সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে পরীক্ষা চলছে। জেলায় এইচএসসি ও সসমমানের মোট ১৪৬৫৬ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে। তারমধ্যে এইসএসসি পরীক্ষার্থী ১০৬৪৪ জন। আলীম পরীক্ষার্থী ২১৭৭ জন। এইসএসসি (বিএম ও ভোকেশনাল) পরীক্ষার্থী ১৮৩৫ জন। গত ১ এপ্রিল অনুষ্ঠিত প্রথম পরীক্ষার দিন ৮৭ জন ও ২ এপ্রিল অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় পরীক্ষার দিন ৮৮ জন সহ মোট ১৭৫ জন পরীক্ষার্থী কেন্দ্রে অনুপস্থিত ছিল। কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের শিক্ষা শাখা এতথ্য নিশ্চিত করেছে। কক্সবাজার সদর উপজেলার পরীক্ষা কেন্দ্র গুলোতে কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন এবং অন্যান্য ৭ টি উপজেলায় স্ব স্ব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাগণ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিসাবে পরীক্ষা কেন্দ্র গুলোতে ১৪৪ ধারা জারী করেছেন। জারীকৃত আদেশ অনুযায়ী পরীক্ষা শুরু হওয়ার এক ঘন্টা আগে থেকে এবং শেষ হওয়ার এক ঘন্টা পর পর্যন্ত পরীক্ষা কেন্দ্রের ২০০ মিটার ব্যাসার্ধের মধ্যে ১৪৪ ধারা জারী থাকবে। মোট ৩১ টি পরীক্ষা কেন্দ্রের মধ্যে ১৫ টি এইসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্র, ৮ টি আলীম পরীক্ষা কেন্দ্র এবং ৮ টি এইসএসসি (ভোকেশনাল ও বিজনেস ম্যানেজমেন্ট) পরীক্ষা কেন্দ্র রয়েছে। চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের অধীনে কক্সবাজার জেলার এইসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রগুলো হলো-কক্সবাজার সরকারি কলেজ (কক্সবাজার-১) পরীক্ষার্থীর-১৪০৯ জন। কক্সবাজার সরকারি মহিলা কলেজ (কক্সবাজার-৩) পরীক্ষার্থী-১০১১ জন। কক্সবাজার সিটি কলেজ (কক্সবাজার-৫) পরীক্ষার্থী-১০৫৯ জন। ঈদগাঁও ফরিদ আহমদ কলেজ-(কক্সবাজার-৪) পরীক্ষার্থী-৮৭৯ জন। কুতুবদিয়া কলেজ, পরীক্ষার্থী-৬৮২ জন। মহেশখালী কলেজ (মহেশখালী-১) পরীক্ষার্থী-২৯২ জন।বঙ্গবন্ধু মহিলা কলেজ (মহেশখালী-২) পরীক্ষার্থী-৭৩০ জন। বঙ্গমাতা ফজিলতুন্নেছা মুজিব কলেজ, উখিয়া (উখিয়া-৩) পরীক্ষার্থী-৫৬৩ জন। উখিয়া কলেজ (উখিয়া-১) পরীক্ষার্থী-৪৭৭ জন। টেকনাফ এজাহার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় (টেকনাফ-২) পরীক্ষার্থী-৪৮৩ জন। শহীদ জিয়াউর রহমান উপকূলীয় কলেজ, পেকুয়া, পরীক্ষার্থী-৪২২ জন। ডুলাহাজারা উচ্চ বিদ্যালয় (চকরিয়া-৫) পরীক্ষার্থী-৬৮১ জন)। চকরিয়া কলেজ (চকরিয়া-১) পরীক্ষার্থী-৯১৯ জন। চকরিয়া আবাসিক মহিলা কলেজ (চকরিয়া-৪) পরীক্ষার্থী-৬৫২ জন। রামু কলেজ (রামু-১) পরীক্ষার্থী-৩৮৫ জন। মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ইসলামিয়া মহিলা কামিল মাদ্রাসায় আলীম পরীক্ষার্থী-৩১৩ জন। আদর্শ মহিলা কামিল মাদ্রাসায় পরীক্ষার্থী-৩৯৯ জন। চকরিয়া আনোয়ারুল উলুম মাদ্রাসায় পরীক্ষার্থী-৬০০ জন। পুটিবিলা মাদ্রাসা, মহেশখালীতে পরীক্ষার্থী-১৪৭ জন। টেকনাফ রঙ্গীখালী মাদ্রাসায় পরীক্ষার্থী-১৪৮ জন। পেকুয়া আনোয়ারুল উলুম মাদ্রাসায় পরীক্ষার্থী-১৮৬ জন। কুতুবদিয়া বড়ঘোপ মাদ্রাসায় পরীক্ষার্থী-৫৫ জন। উখিয়া রাজাপালং ফাজিল মাদ্রাসায় পরীক্ষার্থী-৩২৯ জন। কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের অধীনে কক্সবাজার সিটি কলেজে এইসএসসি (বিএম ও ভোকেশনাল) পরীক্ষার্থী ৪১৯ জন। কক্সবাজার টেকনিকাল স্কুল এন্ড কলেজে পরীক্ষার্থী-১৭২ জন। আলমগীর ফরিদ টেকনিক্যাল এন্ড ম্যানেজমেন্ট কলেজ, মহেশখালীতে পরীক্ষার্থী-৫৯জন। রামু সরকারি কলেজে পরীক্ষার্থী-৩০১ জন। উখিয়া সরকারি কলেজে পরীক্ষার্থী-১১৪ জন। নুরুল ইসলাম চৌধুরী টেকনিক্যাল বিএম স্কুল এন্ড কলেজ, উখিয়াতে পরীক্ষার্থী ২২০-জন। কুতুবদিয়া টেকনিক্যাল এন্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজে পরীক্ষার্থী ৪৩ -জন এবং শহীদ জিয়া বিজনেস ম্যানেজমেন্ট ইন্সটিটিউট, পেকুয়াতে পরীক্ষার্থী-১০৭জন। এদিকে গত সোমবার প্রথমদিন বাংলা প্রথম পত্রের পরীক্ষা চলাকালে কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন কক্সবাজার সরকারি মহিলা কলেজ পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন এবং পরীক্ষার সার্বিক পরিবেশ দেখে তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •