কক্সবাজার সদরে জুয়েল, রশিদ ও হামিদাকে বিজয়ী ঘোষণা

শাহেদ মিজান, সিবিএন:

বহুল আলোচিত কক্সবাজার সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন সরকারি দল আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী ও কক্সবাজারের কিংবদন্তি নেতা প্রয়াত একেএম মোজাম্মেল হকের কনিষ্ঠ পুত্র কায়সারুল হক জুয়েল। ভাইস-চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন বই প্রতীকের প্রার্থী দীর্ঘদিন মাঠে থাকা রশিদ মিয়া। মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন হামিদা তাহের। রাতে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা কার্যালয় থেকে তাদেরকে বেসরকারিভাবে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়।

জেলা রিটার্নিং কার্যালয়ের ঘোষিত ফলাফল মতে,, তিনি নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়ে কায়সারুল হক জুয়েল ৩৩৪৬৮ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীকের সেলিম আকবর। তিনি পেয়েছেন ২৯৫৫৭ এবং তার পরে রয়েছেন কক্সবাজার পৌরসভা সাবেক চার বারের চেয়ারম্যান নূরুল আবছার। তিনি পেয়েছেন ২০০৪২ ভোট।

অপর দিকে, ভাইস-চেয়ারম্যান নির্বাচিত রশিদ মিয়া (বই) পেয়েছেন ১৬৭৫৫ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি টিয়া পাখি প্রতীকের প্রার্থী হাসান মুরাদ আনাস পেয়েছেন ১২৭৫৮ ভোট। এরপরে কাজী রাসেল আহম্মদ নোবেল (গ্যাস সিলি-ার) পেয়েছেন ১১৬৩৪ ভোট, কামাল উদ্দিন (তালা) পেয়েছেন ১১০৪০ ভোট, বাবুল কান্তি দে (মাইক) পেয়েছেন ৯৪৩৪ ভোট, ছোটন রাজা (টিউবওয়েল) ৮৮৮০ ভোট, কাইয়ুম উদ্দীন (চশমা) পেয়েছেন ৭৬৩৫ ভোট, কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মোরশেদ হোসাইন তানিম (উড়োজাহাজ) পেয়েছেন ৫৯৫৮ ভোট এবং আবদুর রহমান (পালকি) পেয়েছেন ১২৫২ ভোট।

মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান নির্বাচিত হামিদা তাহের পেয়েছেন ৪৮৮৪৯ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি বর্তমান ভাইস-চেয়ারম্যান হেলেনাজ তাহেরা পেয়েছেন ২১৫১০ এবং আয়েশা সিরাজ পেয়েছেন ১৪৪৮৫ ভোট।

নির্বাচন কার্যালয়ের তথ্য মতে, চতুর্থ ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে এবং কক্সবাজার জেলায় শেষ ধাপে একমাত্র কক্সবাজার সদর উপজেলায় ভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে। পুরো উপজেলায় ইভিএম-এ ভোট গ্রহণ করা হয়। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টার পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণ চলে। ভোটগ্রহণ শেষে ইভিএম-এ গণনা করে রাত ১০টার দিকে

সরকারিভাবে ফলাফল ঘোষণা করা হয়। তবে ইভিএম- এ ভোট গ্রহণ করায় ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই কেন্দ্র ভিত্তিক ফলাফল পাওয়া যায়। তাই সরকারিভাবে ঘোষণার আগেই সন্ধ্যা নাগাদ চেয়ারম্যান প্রার্থীর বিজয় নিশ্চিত হওয়া যায়।

কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন বলেন, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণের জন্য সবোচ্চ প্রচেষ্টায় ছিলো আইন-শৃঙ্খলাবাহিনী। তাই নির্বাচনে কোথাও কোনো ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। নির্বাচনে কোথাও কোনো ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

সর্বশেষ সংবাদ

কক্সবাজারের জেলা জজ বদলি, নতুন জেলা জজ মোহাম্মদ ইসমাইল

কক্সবাজার নারী নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের শূন্য পদে জজ নিয়োগ

কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা জজ আবু তাহের পূর্ণাঙ্গ জেলা জজ হলেন

টেকনাফ গ্রীনফিল্ড স্কুল এন্ড কলেজে নিয়োগ 

উখিয়ার আলোচিত মাহবুব হত্যা মামলার আসামী গ্রেফতার

কক্সবাজার শহরে ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন

বঙ্গবন্ধু সাফারী পার্ক এলাকা থেকে কৃষকের লাশ উদ্ধার

চকরিয়ায় মাদকাসক্ত ছেলেকে পুলিশে দিলেন বাবা

রোহিঙ্গাদের মিয়ানমার ফেরাতে চীনের ‘মানবিক উদ্যোগ’ ব্যর্থ

চকরিয়ায় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় পথচারী বৃদ্ধ নিহত

গর্জনিয়া ইউনিয়ন বিট পুলিশিং সমন্বয় কমিটি গঠিত

ওবায়দুল কাদেরের আগমনে জেলা আওয়ামী লীগের স্বাগত মিছিল

মুজিববর্ষে কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের নানা কর্মসূচি গ্রহণ

জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে নিয়োগ পেলেন রুমি ও মনছুর

কউক এর বিল্ডিং কনস্ট্রাকশন কমিটির ২২ তম সভা সম্পন্ন

টেকনাফের ইয়াবাকারবারী তাহেরের বাড়ির মালামাল ক্রোক

পেকুয়ায় স্বামীর পরকিয়া সইতে না পেরে স্ত্রীর আত্মহত্যা!

কক্সবাজারের সিজেএম তৌফিক আজিজ জেলা জজ হলেন

জেলায় জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন সার্ভার চালুকরণে সচেতনতা বিষয়ক আলোচনা সভা

কক্সবাজারে সহকারী জজ নিয়োগ পেলেন পাঁপড়ি বড়ুয়া