মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১০৮ টি ভোট কেন্দ্রের কোথাও ইভিএম (ইলেকট্রিক ভোটিং মেশিন)-এ ত্রুটি দেখা দেয়নি। সোমবার বিকেল সাড়ে তিনটা পর্যন্ত সকল ভোট কেন্দ্রে ইভিএম মেশিন গুলো অত্যন্ত সচল ছিল। ভোটারেরাও অত্যান্ত স্বাচ্ছন্দ্যে ইভিএম-এ ভোট দিচ্ছে। কক্সবাজার সদর উপজেলা পরিষদের রিটার্নিং অফিসার ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সা.) মোঃ মাসুদুর রহমান মোল্লার কাছে সদর উপজেলার সার্বিক নির্বাচন পরিস্থিতি জানতে চাইলে সিবিএন-কে তিনি একথা জানান। তিনি বলেন-প্রত্যেক ভোটকেন্দ্রে তিনজন করে সেনাবাহিনীর সদস্য ইভিএম টেকনেশিয়ান হিসাবে স্টেনবাই রাখা হয়েছে। চুড়ান্ত ফলাফল ঘোষনা করা পর্যন্ত তারা ভোটকেন্দ্রে অবস্থান করবেন। রিটার্নিং অফিসার মোঃ মাসুদুর রহমান মোল্লা সিবিএন-কে আরো জানান-বিকেল সাড়ে তিনটা পর্যন্ত কোথাও কোন গোলযোগের সংবাদ পাওয়া যায়নি। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সর্বত্র ভোট গ্রহন চলছে। তিনি জানান-বিকেল সোয়া তিনটা পর্যন্ত গড়ে শতকরা ২৫ থেকে শতকরা ২৭ পর্যন্ত ভোট কাস্ট হয়েছে। সবচেয়ে বড় সন্তুষ্টি হলো-কোন ভোটকেন্দ্রে ইভিএম মেশিনে কোন ত্রুটি হয়নি। কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। কক্সবাজার পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের এবিসি ঘোনা আবু বকর ছিদ্দিক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিকেল সাড়ে তিনটায় পরিদর্শনে গিয়ে দেখা গেছে ২৫০৩ ভোটের ৫৩৭ ভোট কাস্ট হয়েছে। যাহার শতকরা হার ২২ মাত্র। এ ভোটকেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার ও বিআরডিবি’র ভারপ্রাপ্ত উপ পরিচালক মোঃ মহিউদ্দীন শরীফ জানান-অত্যন্ত স্বাচ্ছন্দ্যে ভোটারেরা দিয়েছেন। তবে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহন সম্পূর্ণ নতুন হওয়ায় ভোটাদের এ বিষয়ে সিস্টেম বুঝিয়ে দিয়ে ভোট গ্রহন করা হচ্ছে। সকাল থেকে এ ভোটকেন্দ্রে রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার লুৎফুর রহমান সহ বিভিন্ন উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এ ভোট কেন্দ্রটি পরিদর্শন করেছেন বলে সহকারী প্রিজাইং অফিসার ও পশ্চিম চৌফলদন্ডী হাকিমিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দ্বীন মুহাম্মদ জানিয়েছেন সিবিএন-কে জানিয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •