সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
তরুণ ছাত্রছাত্রীদের ও জলবায়ু একটিভিস্টদের নিয়ে গঠিত হলো কক্সবাজার ইয়ুথ জলবায়ু ফোরাম। ২৫ মার্চ ২০১৯ তারিখ সকাল ১০টায় কোস্ট ট্রাস্ট-এর কক্সবাজার আঞ্চলিক অফিসে অনুষ্ঠিত এক প্রস্তুতি সভায় এ কমিটি গঠিত হয়। কক্সবাজার সদরের বিভিন্ন কলেজে অধ্যয়নরত জলাবায়ু পরিবর্তন বিষয়ে জ্ঞান অর্জন করতে এবং এ বিষয়ে কাজ করতে ইচ্ছুক ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে এ ফোরামের কমিটি গঠিত হয়।

বৃটিশ কাউন্সিলের সহায়তায় ও বেসরকারি সংস্থা কোস্ট ট্রাস্ট কর্তৃক পরিচালিত জলবায়ু অর্থায়ন স্বচ্ছতা অর্জন কৌশল (Climate Finance Transparency Mechanism-CFTM) প্রকল্পের কার্যক্রমের আওতায় কক্সবাজার ইয়ুথ জলবায়ু ফোরাম গঠিত হয়। উক্ত কমিটি গঠনের প্রস্তুতি সভা আহবানের মাধ্যমে এবং উপস্থিত ছাত্রছাত্রীদের অংশগ্রহণের মাধ্যমে কক্সবাজার ইয়ুথ জলবায়ু ফোরাম গঠিত হয়। সভার শুরুতে পরিচিতি পর্বে ফোরামের সদস্য হতে ইচ্ছুক উপস্থিত ছাত্রছাত্রীরা নিজেদের পরিচয় তুলে ধরেন এবং জলবায়ু পরিবর্তনের বিষয়ে জানতে এবং এ বিষয়ে কাজ করতে নিজেদের আগ্রহের বিষয় ব্যক্ত করেন।

ফোরাম গঠনের এই প্রস্তুতি সভায় ইয়ুথ জলবায়ু ফোরাম গঠনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য ব্যাখ্যা করেন জলবায়ু অর্থায়ন স্বচ্ছতা অর্জন কৌশল প্রকল্পের ডিস্ট্রিক টিম লিডার ও কোস্ট ট্রাস্ট-এর সহকারী পরিচালক মকবুল আহমেদ। সভায় জলবায়ু পরিবর্তনের প্রাথমিক ধারনা ব্যাখা করে বক্তব্য রাখেন মং তুন হ্লা রাখাইন, ও মো: ইলিয়াছ মিয়া।

সভায় অংশগ্রহণকারীদেরকে ১৬ বছরের সুইডিশ কিশোরী জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ে আন্দোলনকারী যোদ্ধ ও নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনীত গ্রেটা থুনবার্গ-এর গত ডিসেম্বরে পোলান্ডে অনুষ্ঠিত জাতিসংঘের জলবায়ু বিষয়ক বিশ্ব সম্মেলনে আলোড়ন সৃষ্টিকারী দেয়া বক্তৃতার বাংলা তর্জুমাসহ ভিডিওটি শোনানো হয়।

সভায় সকলের মতামতের ভিত্তিতে মোঃ ইলিয়াছ মিয়াকে ফোরাম লিডার ও শর্মী পালকে ফোরামের সেক্রেটারী মনোনীত করে ২০ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়।

সভায় উপস্থিত সদস্যদের মধ্য থেকে ইয়ুথ জলবায়ু ফোরাম গঠনের গুরুত্ব বিষয়ে মন্তব্য করে বক্তব্য রাখেন আব্দুল মান্নান রানা, রমজান আলী, তাহমিনা আকতার প্রমুখ।

শেষে সভার সভাপ্রধান শর্মী পালের সমাপনী বক্তব্যের মাধ্যমে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

সভাটির সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন প্রোগ্রাম অফিসার মং এথেইন রাখাইন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •