বার্তা পরিবেশক:
কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাচনের ভাইস-চেয়ারম্যান প্রার্থী আবদুর রহমান (পালকি) ভোটের মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। শহর থেকে গ্রামে রাতদিন ভোটারের দ্বারে দ্বারে ছুটে যাচ্ছেন। ভোটাররাও আবদুর রহমানকে ব্যাপকভাবে সমর্থন জানাচ্ছেন। তিনি যেখানে যাচ্ছেন সেখানে সৃষ্টি হচ্ছে গণজোয়ার। সব মিলে প্রচারণা এবং ভোটের লড়াই সব প্রার্থী থেকে এগিয়ে রয়েছেন আবদুর রহমান।

জানা গেছে, গণমানুষের দাবিতে নির্বাচনে অংশ নেয়া আবদুর রহমান বিজয়ের লক্ষ্যে নিরলস প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। কক্সবাজার শহরের অলিগলি থেকে বৃহত্তর ঈদগাঁও’র অত্যন্ত গ্রামে তিনি ভোটারের দ্বারে দ্বারে গিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছেন। এসময় তিনি তার স্বপ্ন ও প্রতিশ্রুতির তুলে ধরছেন ভোটারদের মাঝে এবং প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে প্রতীজ্ঞার কথা জানাচ্ছেন। অন্যদিকে সৎ, পরিচ্ছন্ন, মানবদরদী মানুুষ আবদুর রহমানের পক্ষে গ্রাম থেকে শহরে-সবখানে ভোটাররা বিপুল সাড়া দিচ্ছে। তিনি যেখানে যাচ্ছেন ভোটাররা তাকে সাদরে গ্রহণ করে নিয়ে ভোট দেয়ার চূড়ান্ত প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন।

জানা গেছে, কক্সবাজার সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে যে সব প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন তাদের মধ্যে সবচেয়ে যোগ্য আবদুর রহমান। উচ্চশিক্ষা, সমাজসেবাসহ মানবতার কাজে সব সময় নিজেকে জড়িয়ে রাখা আবদুর রহমান ছোটবেলা থেকেই মানবতার কাজ করে আসছেন। রাত-দিন সব সময় অসহায় মানুষের দুঃখে ছুটে যেয়ে থাকেন। এ কারণে দীর্ঘদিন ধরে মানবদরদী হিসেবে সুনাম রয়েছে তার। এছাড়া যোগ্যতার বলে তিনি অনেক এগিয়ে রয়েছেন। একজন ব্যবসায়ী নেতা জানা গেছে, আবদুর রহমান একজন গ্রহণযোগ্য ব্যক্তি। একাধারে ব্যবসায়ী, সংগঠক, সমাজকর্মী ও গণমাধ্যমকর্মী তিনি।

আবদুর রহমান সাংবাদিক ইউনিয়ন, কক্সবাজার-এর সদস্য। এছাড়াও বিভিন্ন সংগঠনের দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি বৃহত্তর বীচ ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি, সাতকানিয়া-লোহাগাড়া সমিতির বিপুল ভোটে নির্বাচিত সহ-সভাপতি, বাংলাদেশ নদী বাঁচাও আন্দোলনের চট্টগ্রাম বিভাগীয় সমন্বয়কারী ও কক্সবাজার জেলার সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তার এসব কর্মকান্ড বিভিন্ন মহলে তার ব্যাপক পরিচিতি ও গ্রহণ যোগ্যতা সৃষ্টি হয়েছে। সমাজ সেবার এই পরিসর বাড়াতে সাধারণ মানুষের ভাগ্যেন্নয়নের জন্য তিনি সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়েছেন।

এসবের পাশাপাশি সমাজ সেবামূলক কাজ করে তিনি দীর্ঘদিন ধরে সদর উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের সাধারণ মানুষের সুখে-দু:খে পাশে থেকেছেন। যতটুকু পেরেছেন করে গেছেন সাহায্য-সহযোগিতাও। সবমিলিয়ে ইতিমধ্যে তরুণ এই সমাজকর্মী সমাজের অসহায় দরিদ্র মানুষের সাহায্য সহযোগিতা করে জনসাধারণের প্রশংসা কুড়িয়েছেন।

জানতে চাইলে ভাইস-চেয়ারম্যান প্রার্থী আবদুর রহমান বলেন, আলহামদুলিল্লাহ, আল্লাহর রহমতে ভোটারের ব্যাপক আর সত্যিকার প্রতিশ্রুতি পাচ্ছি। যেখানে যাচ্ছি সেখানেই ভোটাররা ভালোবাসার আদরে জড়িয়ে রাখছেন। তাতেই আমার বিশ^াস, আমার পালকি মার্কার বিজয় হবে।

তিনি আরো বলেন, মানুষের সেবার জন্যই আমি নির্বাচন করছি। কারণ ছোটবেলা থেকেই আমি সাধারণ মানুষের কাতারে থেকে সামাজিক কাজ করে এসেছি। জনগণের ভালবাসা আর ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত হতে পারি তাহলে সদর উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে উন্নয়নের সাথে সাধারণ মানুষকে সহযোগিতায় নিজেকে উৎসর্গ করে দেবো। আধুনিক এক সদর উপজেলা গড়ে তুলতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •