`মগনামার পরিস্থিতি শান্ত, কঠোর অবস্থানে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী’

প্রকাশ: ২৪ মার্চ, ২০১৯ ১১:২৮ , আপডেট: ২৪ মার্চ, ২০১৯ ১২:১৪

পড়া যাবে: [rt_reading_time] মিনিটে


দক্ষিণ মগনামা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় যেখানে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে । ছবি – Safwanul Karim

দক্ষিণ মগনামা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় যেখানে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে ।  ছবি – সাংবাদিক ছফওয়ানুল করিম

শাহেদ মিজান, সিবিএন:

পেকুয়া উপজেলা মগনামা ইউনিয়নের দক্ষিণনামা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে সকালের দিকে সৃষ্ট অপ্রীতিকর পরিস্থিতি শান্ত হয়েছে। অতর্কিত কিছু দুর্বৃত্ত ভীতি সৃষ্টির চেষ্টা করেছিল তখন। খবর পেয়ে অভিযান চালিয়ে তাৎক্ষণিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ভোটের স্বাভাবিক পরিবেশ করেছেন আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্যরা। এরপর থেকে অত্যন্ত শান্ত পরিবেশে স্বাভাবিকভাবে ভোট দিচ্ছে ভোটাররা। কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ইকবাল হোসাইন সিবিএনকে এই তথ্য জানান।

জানা গেছে, সকাল ৯টার দিকে দক্ষিণ মগনামা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র এলাকায় কিছু দুর্বৃত্ত অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটানোর চেষ্টা করে। এসময় দুর্বৃত্তরা গুলি ছুঁড়ে। এই ঘটনায় চার জন আহত হয়। মগনামার ইউপি চেয়ারম্যান শরাফত উল্লাহ ওয়াসিমের লোকজন এই ঘটনা ঘটায় বলে দাবি করেন স্বতন্ত্র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ইকবাল হোসাইন

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ইকবাল হোসাইন জানান, দক্ষিণ মগনামা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে কিছু দুর্বৃত্ত অতর্কিত ভীতি সৃষ্টির চেষ্টা করেছিল তখন। তবে তেমন বড় অঘটন ঘটেনি। খবর পেয়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সদস্যরা অভিযান চালিয়ে তাৎক্ষণিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসেন। তখন থেকে ওই কেন্দ্রে অতিরিক্ত আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য নিযুক্ত করা হয়। এতে ভোটের পরিবেশ স্বাভাবিক হয়ে যায় এবং ভোটাররা নির্বিঘেœ ভোট দিচ্ছে।

মোঃ ইকবাল হোসাইন বলেন, নিজেদের প্রভাব সৃষ্টির জন্য কিছু দুর্বৃত্ত ওই ব্যর্থচেষ্টা করেছিল। তারা সফল হতে পারেনি। তাদেরকে কঠোরভাবে দমন করা হয়েছে। ভোটের আনুষ্ঠানিকতা শেষ না হওয়া পর্যন্ত কেউ বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করলে কোনোভাবেই ছাড় দেয়া হবে না।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •