ভোটে পুলিশের কঠোর নিরাপত্তা: ৩০ প্লাটুন বিজিবি, ৬ প্লাটুন র‌্যাব মোতায়েন

প্রকাশ: ২৪ মার্চ, ২০১৯ ০৮:৩৯ , আপডেট: ২৪ মার্চ, ২০১৯ ০৯:১৪

পড়া যাবে: [rt_reading_time] মিনিটে


সকালে ভোটকেন্দ্র থেকে ছবি পাঠিয়েছেন সিবিএন-এর রামু প্রতিনিধি সোয়েব সাঈদ।

সকালে ভোটকেন্দ্র থেকে ছবি পাঠিয়েছেন সিবিএন-এর রামু প্রতিনিধি সোয়েব সাঈদ।

ইমাম খাইর, সিবিএন:
প্রশাসনের কঠোর ব্যবস্থাপনার মধ্য দিয়ে জেলার ৫টি উপজেলার বহুল প্রত্যাশিত ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে।
রবিবার (২৪ মার্চ) তৃতীয় ধাপে রামু, উখিয়া, টেকনাফ, মহেশখালী ও পেকুয়া উপজেলা পরিষদের নির্বাচন হচ্ছে।
রিটার্নিং কর্মকর্তা ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান মোল্লা জানান, সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে প্রত্যেকটি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ চলবে। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণের জন্য প্রত্যেক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ ৪৭ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়াও প্রত্যেক উপজেলায় একজন করে জুড়িশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োজিত থাকবে।
৫ উপজেলায় পুলিশের পাশাপাশি ৩০ প্লাটুন বিজিবি ও ৬ প্লাটুন র‌্যাব মোতায়েন করা হয়েছে। মহেশখালী ও টেকনাফ উপজেলার সেন্টমার্টিন ইউনিয়নে কোস্টগার্ড দায়িত্ব পালন করছে। আনসার সদস্যরাও নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছে।
পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন বলেন, প্রতিদ্বন্দ্বি কোন প্রার্থীকে বিন্দু পরিমাণ প্রভাব বিস্তারের সুযোগ দেওয়া হবে না। গত ১৮ মার্চ অনুষ্ঠিত চকরিয়া উপজেলা নির্বাচনের মত সকল ভয়ভীতি, হুমকি উপেক্ষা করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দায়িত্ব পালন করবে। প্রতিকেন্দ্রে পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে।
রামু:
রামুতে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন নৌকা প্রতীকের প্রার্থী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রিয়াজ উল আলম ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আনারস প্রতীকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সোহেল সরওয়ার কাজল।
ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন- বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান আলী হোসেন (টিউবওয়েল), উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও রামু উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি সালাহ উদ্দিন (তালা), ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক হেলাল উদ্দিন (উড়োজাহাজ) এবং আওয়ামীলীগ নেতা আবদুল্লাহ সিকদার (চশমা)।
মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৩ জন। এরা হলেন- কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মুসরাত জাহান মুন্নি (প্রজাপতি), রামু উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মনোয়ারা ইসলাম নেভি (ফুটবল) এবং উপজেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি আফসানা জেসমিন পপি (কলসি)।
রামু উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ১লাখ ৫৮ হাজার ১৮ জন। সেখানে ৮১ হাজার ৪১০ জন পুরুষ এবং ৭৬ হাজার ৬০৮ নারী ভোটার। মোট ভোট কেন্দ্র সংখ্যা ৬১টি।
প্রতিকেন্দ্রে একজন ছাড়াও আপদকালীন সময়ে দায়িত্বপালন করার জন্য অতিরিক্ত ১০ জন প্রিজাইডিং কর্মকর্তা নিয়োগ করা হয়েছে।
উখিয়া:
জেলার আজকে শুরু হওয়া নির্বাচনে একমাত্র উখিয়ায় ইতোমধ্যে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে কামরুন্নেছা বেবী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।
উখিয়ায় শুধুমাত্র পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সেখানে ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ২০ হাজার ৩৩৮ জন। ৪৫টি কেন্দ্রে ভোটকক্ষ সংখ্যা ২১১ টি।

টেকনাফ জাদিমুড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্র থেকে ছবি পাঠিয়েছেন সাংবাদিক আমান উল্লাহ কবির।
টেকনাফ জাদিমুড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্র থেকে ছবি পাঠিয়েছেন সাংবাদিক আমান উল্লাহ কবির।

টেকনাফ:
টেকনাফ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন নৌকা প্রতীকের মনোনীত প্রার্থী অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আহমেদ ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি নুরুল আলম।
ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৮ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সেখানে ভোটগ্রহণ চলছে ৫৫টি কেন্দ্রের ২৫৪টি কক্ষে। ভোটার রয়েছে ১ লাখ ৪৫ হাজার ৮০৮ জন। তৎমধ্যে ৭২ হাজার ৬৫৭ জন এবং মহিলা ভোটার ৭৩ হাজার ১৫১ জন।
প্রতিকেন্দ্রে একজন করে প্রিসাইডিং অফিসার দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়াও আপদকালীন সময়ের জন্য অতিরিক্ত ৮ জন প্রিসাইডিং অফিসার মজুদ থাকবে।
মহেশখালী:
মহেশখালীতে চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন নৌকা প্রতীকের মনোনীত প্রার্থী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হোছাইন ইব্রাহিম, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আনারস প্রতীকে আওয়ামী লীগ নেতা শরিফ বাদশা, দোয়াত কমল প্রতীকে মহেশখালী উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক সাজেদুল করিম ও মিনার প্রতীকে মো. ইরফান উল্লাহ। এখানে প্রধান দু’জনই নৌকা প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী।
ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সেখানে ভোটার রয়েছে ২ লক্ষ ১১ হাজার ৬৫৪ জন। ১টি পৌরসভা ও ৮টি ইউনিয়নে ৭৪টি কেন্দ্রের ৩২০ টি কক্ষে ভোট গ্রহণ চলবে। প্রতিটি কেন্দ্রে একজন করে প্রিসাইডিং অফিসার দায়িত্ব পালন করবে। এছাড়াও আপদকালীন সময়ের জন্য ১০ জন প্রিসাইডিং অফিসার মজুদ থাকবে। মহেশখালী উপজেলা নির্বাচনে ৭ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, ১জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, ৫ প্লাটুন বিজিবি, ৩৫৯জন পুলিশ, র‌্যাব, আনসার ও ভিডিপি মোতায়েন করা হয়েছে।
পেকুয়া:
পেকুয়ায় উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন নৌকা প্রতীকের মনোনীত প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জেলা আওয়ামী লীগ নেতা এসএম গিয়াস উদ্দিন ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম।
পেকুয়ায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে ৬ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে ৩জন প্রার্থী। সেখানে ভোটার রয়েছে ১ লাখ ৬ হাজার ২৭৯ জন। ৪০টি কেন্দ্রের ৮৫ কক্ষে ভোটগ্রহণ চলবে। পেকুয়ায় আপদকালীন সময়ের জন্য ৬জন প্রিসাইডিং কর্মকর্তা মজুদ রাখা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •