মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

সুপ্রীমকোর্ট আইনজীবী সমিতির একটানা সাতবার নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এ.এম মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন-বাংলাদেশ বার কাউন্সিল থেকে একজন নবীন আইনজীবী পাশ করে সনদ নিয়ে আইন পেশায় যোগ দেয়ার পর তাকে কমপক্ষে ৫ বছর রাষ্ট্রীয় ভাবে সম্মানী ভাতা দেয়ার দাবী জানিয়েছেন। যদি নবীন আইনজীবীদের ভাতা দেয়ার প্রথা চালু করা হয়, তাহলে একজন নবীন আইনজীবী তার পরিবার পরিজন নিয়ে মার্যাদার সাথে নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারবে। সহজে পেশা শিখতে পরাবে। সাধারণ মানুষকে সেবা দিতে পারবে। আইনপেশার সনদ লাভের পরও অন্যান্য পেশার দিকে ঝুঁকে পড়ার প্রবণতা কমে যাবে। পেশাদারিত্বের প্রতি আগ্রহ সৃষ্টি হবে। তিনি বলেন-নবীন আইনজীবীদের ভারত সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সম্মানীভাতা দেয়ার প্রথা চালু রয়েছে। ব্যারিস্টার এ.এম মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন-ভাতা দেয়ার নিয়ম চালু হলে আাইনের শাসন, গণতন্ত্র চর্চা, মানাবাধিকার সুরক্ষায় এটা অনেকটা সহায়ক হবে।
বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সাবেক সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য এ.এম মাহবুব উদ্দিন খোকন বৃহস্পতিবার ২১ মার্চ সকালে কক্সবাজার জেলা আইনজীবী সমিতি ভবনে নবীন প্রবীন আইনজীবীদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় একথা বলেন। কক্সবাজার জেলা জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের আহবায়ক ও জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এডভোকেট মোহাম্মদ ছৈয়দ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত মতবিনিময় সভায় অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন-কক্সবাজার জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক ও সাসাবেক পিপি এড. শামীম আরা স্বপ্না, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এড. মোস্তাক আহামদ চৌধুরী, জেলা আইনজীবী সমিতির সিনিয়র সহ সভাপতি এড. সাদেক উল্লাহ, এড. মোহাম্মদ সেলিম উল্লাহ, এড. রমিজ আহামদ, এড. মোহাম্মদ আবদুল্লাহ, এড. তাওহিদুল আনোয়ার, এড. ফিরোজুল আলম, এড. খোরশেদ আলম, এড. ওসমান গণি, এড. মঈনুল আমিন ইমু, এড. কলিমুল্লাহ, এড. মিজানুর রহমান ভূট্টো, এড. সৈয়দ আহমদ উজ্জ্বল এড. রাবেয়া সুলতানা, এড. মুহাম্মদ ইসমাইল, এড. জালাল উদ্দিন, এড. আবদুল করিম এড. সাইফুল্লাহ নুর প্রমুখ।
পরে কক্সবাজার কক্সবাজার পৌর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক রাশেদ মোহাম্মদ আলী’র নেতৃত্বে বিএনপি’র একটি প্রতিনিধিদল বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার এ.এম.মাহবুব উদ্দিন খোকনের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করেন। এসময় অন্যান্যের মধ্যে বিএনপি নেতা আবুল কাসেম, জয়নাল আবেদীন, শাহ আলম, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ফাহিমুর রহমান ফাহিম, একরামুল হক, নুরুল কবির প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। ব্যারিস্টার এ.এম. মাহবুব উদ্দিন খোকন বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯ টায় বিমানযোগে কক্সবাজার পৌঁছালে আইনজীবী নেতৃবৃন্দ সেখানে তাঁকে পুস্পস্তবক দিয়ে স্বাগত জানান। তিনি উল্লেখিত অনুষ্ঠান সমুহে যোগদানের পর কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সাবেক পিপি এডভোকেট ছৈয়দ আহামদের সন্তান সুপ্রীম কোর্টের বিশিষ্ট আইনজীবী, ন্যাশনাল ল’ইয়ার কাউন্সিলের (এনএলসি) চেয়ারম্যান এডভোকেট জুলফিকার আলী জুনু’র চকরিয়া বিয়ে অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে একইদিন বিকেল সাড়ে ৪ টায় বিমান যোগে কক্সবাজার ত্যাগ করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •