প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

যুক্তিতে মুক্তি-এ শ্লোগানে  গতকাল বৃহস্পতিবার  প্রথম আলো বন্ধুসভার  বিতর্ক উৎসবের  ঈদগাঁও পর্ব  ঈদগাহ আদর্শ উচ্চবিদ্যালয় মাঠে  অনুষ্টিত হয়েছে। চুড়ান্ত প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়  ঈদগাহ আদর্শ শিক্ষা নিকেতন। রানার আপ  হয়েছে  ঈদগাহ আদর্শ উচ্চবিদ্যালয়।

সকাল ১০টায় জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে উৎসব  শুরু হয়। উদ্বোধনীসভায় স্বাগত বক্তব্য দেন  প্রথম আলো  কক্সবাজার আঞ্চলিক অফিসের  প্রধান  আব্দুল কুদ্দুস রানা। বক্তব্য দেন, ঈদগাহ আদর্শ উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক  খুরশীদুল  জন্নাত, প্রথম আলো বন্ধুসভার সভাপতি  ইব্রাহিম খলিল।

বিতর্ক উৎসব আয়োজনে সহযোগিতায় দিচ্ছে- কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ও দি ঢাকা মার্কেন্টাইল কো-অপারেটিভ ব্যাংক লিমিটেড।

এরপর শুরু হয় বিতর্ক উৎসব।  উৎসবে  অংশ নেয়  চকরিয়া ও ঈদগাঁও  এলাকার  ৮টি দল । চুড়ান্ত প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয় ঈদগাহ আদর্শ শিক্ষা নিকেতন। রানার আপ হয় ঈদগাহআদর্শ উচ্চবিদ্যালয়। তৃতীয়  হয়েছে  পোকখালী  আদর্শ  উচ্চবিদ্যালয়।

বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন- ঈদগাহ ফরিদ আহমদ কলেজের প্রভাষক আপন চন্দ্র দে, ডিজিটাল মেডিকেল ইন্সটিটিউটের অধ্যক্ষ হাসনা হুরাইন চৌধুরী, রামুক্যান্টনমেন্ট ইংলিশ স্কুলের শিক্ষক সাইফুল্লাহ সাইফ, রামু ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক হাবিবুল্লাহ খালেদ।

সাংবাদিক  আব্দুল  কুদ্দুস  রানার  সভাপতিত্বে  অনুষ্টিত  সমাপনী অনুষ্টানে প্রধান অতিথি ছিলেন  কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তপক্ষ (কউক) চেয়ারম্যান লে. কর্ণেল  (অব.) ফোরকান  আহমেদ।  তিনি  শিক্ষার্থীদের  উদ্দেশ্যে বলেন,  মেধা ও মননে নিজেকে  এগিয়ে নিতে  হলে বিতর্ক  চর্চার  বিকল্প  নেই।  কিন্তু  তৃণমূলে  এ অবস্থা  হতাশাজনক।  লেখাপড়ার  পাশাপাশি   শিক্ষার্থীদের  নানাক্ষেত্রে  যোগ্য করে  তোলার  কাজে  যুক্ত  রাখতে  হবে।

কউক  চেয়ারম্যান  বলেন,  পর্যটন রাজধানী কক্সবাজারের  চেহারা  দ্রুত  পাল্টে  যাচ্ছে।  কক্সবাজারের  উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  ২৫টির  বেশি  মেগাউন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছেন।  তাই  উন্নয়নের পাশাপাশিকক্সবাজারের ছেলেমেয়েদের  যোগ্য করে তোলতে  হবে।

আয়োজকেরা  জানায়, এবারের আসরে উপজেলা পর্যায়ে তিনটি উৎসব হচ্ছে। ঈদগাঁও, চকরিয়া ও পেকুয়া উপজেলা নিয়ে হচ্ছে ঈদগাঁও উৎসব গতকাল  শেষ  হয়েছে।  আগামী  এপ্রিল মাসের প্রথম সপ্তাহে  অনুষ্টিত  হবে মহেশখালী ও কুতুবদিয়া নিয়ে  মহেশখালী উৎসব। এরপর  রামু, উখিয়া ও টেকনাফ উপজেলা নিয়ে  হবে রামু উৎসব।  তিন উৎসবের চ্যাম্পিয়ন, রানার আপ ও তৃতীয় স্থান অজনকারী ৯ টি স্কুলের সাথে কক্সবাজার শহরের ৬টি স্কুল এবং জেলার ৮ টি কলেজ নিয়ে এপ্রিলে হবে জেলা উৎসব।

প্রথম আলো বন্ধুসভার সভাপতি ইব্রাহিম খলিল বলেন-  প্রত্যেক প্রতিষ্ঠান তিন জনের বিতর্ক দলের সঙ্গে একজন শিক্ষক রাখতে পারবে। বিষয়বস্তু আগেই জানিয়ে দেয়া হয়েছে এবং প্রস্তাবনার পক্ষে-বিপক্ষে  দলনেতাদেরউপস্থিতিতে ৩০ মিনিট আগে লটারীর মাধ্যমে নির্ধারণ করা হবে। অংশগ্রহনকারী সকলকে সকালের নাস্তা, দুপুরের খাবার, সার্টিফিকেট, টি-শার্ট, কলম,আইডি কার্ড এবং চ্যাম্পিয়ন ও রানার আপ দলকে ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট ওপুরস্কার দেয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •