প্রেস বিজ্ঞপ্তি :
বন রক্ষায় সচেতনতা তৈরী, আলোচনা সভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে আর্ন্তজাতিক বন দিবস উদযাপন করেছে পরিবেশবাদি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘এনভায়রনমেন্ট পিপল’। ২১ মার্চ বৃহস্পতিবার বিকালে আর্ন্তজাতিক বন দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশের কক্সবাজার জেলা শহরের মেরিন ড্রাইভ সড়কের দরিয়ানগর এলাকায় বন রক্ষায় সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন ও আলোচনা সভার আয়োজন করে সংগঠনটি। সংগঠনের পরিচালক মুহাম্মদ হোছাইনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন নেয়ামত উল্লাহ, সাদ্দাম হোসেন, আজিজুল হক, ইমাম হোসেন, আবু ফরহাদ হিরু, বশির আহমদ, মোরশেদ, আব্দুল্লাহ আল তোহা, মাহবুব এলাহী বাবু প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বলেন, সভ্যতার সূচনালগ্ন থেকেই বন ও প্রকৃতি মানুষের মৌলিক চাহিদা পূরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ, বাস্তুসংস্থানের ভারসাম্য বজায় রাখা, দুর্যোগ মোকাবেলা, দারিদ্র্য বিমোচন ও অর্থনৈতিক উন্নয়নে বনের ভূমিকা অপরিসীম। জীবন ও জীবিকার জন্য বন থেকে আমরা পাই খাদ্য, আশ্রয়, ঔষুধ, ছায়া, বিনোদন ও বায়ু। বৈশি^ক উঞ্চতা ও জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাবে বাংলাদেশ বর্তমানে সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছে। এই ঝুঁকি মোকাবেলায় বনের গুরুত্ব সবচেয়ে বেশি। ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার চাপ, শিল্পায়ন, কৃষি সম্প্রসারণ ও নগরায়নের ফলে বন ও বনভূমি হ্রাস পাচ্ছে। এই ঝুঁকি মোকাবেলায় বন রক্ষার পাশাপাশি পতিত ও প্রান্তিক জমি, রাস্তা, বাঁধ, নতুন জেগে উঠা চর, সরকারি জমি, প্রতিষ্ঠান ও বসতবাড়িতে ব্যাপক বনায়ন করতে হবে। এ বিষয়ে মানুষকে এগিয়ে আসার পাশাপাশি সরকারকেও এগিয়ে আসার আহবান জানান বক্তারা। আলোচনা সভার আগে দরিয়ানগর এলাকায় সাধারণ মানুষের মাঝে বন রক্ষার গুরুত্ব নিয়ে ক্যাম্পেইনে অংশ নেন সংগঠনের সদস্যরা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •