সোয়েব সাঈদ, রামু
কক্সবাজারের রামু উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আবু মাসুদ সিদ্দিকী বলেছেন, উন্নত প্রযুক্তি ও কৃষি উপকরণ ব্যবহারের মাধ্যমে অধিক ফলন নিশ্চিত করতে সরকার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এজন্য মাঠ পর্যায়ে কৃষকদের প্রয়োজনীয় সকল সেবা প্রদান করা হচ্ছে। আবাদী এবং পতিত জমির যথাযথ ব্যবহারের মাধ্যমে অধিক ও বিষমুক্ত ফলন বৃদ্ধির জন্য কৃষকদের আন্তরিক হতে হবে।
২০১৮-১৯ রবি মৌসুমে কৃষক পর্যায়ে উন্নত মানের ডাল, তেল ও মসলা বীজ উৎপাদন, সংরক্ষণ ও বিতরণ (৩য় পর্যায়) প্রকল্পের আওতায় এসএমই কৃষক কর্তৃক বাস্তবায়িত প্রদর্শনীর মাঠ দিবস ও রিভিউ ডিসকাসন উপলক্ষ্যে আয়োজিত কৃষক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
বৃহষ্পতিবার (২১ মার্চ) সকাল ১১টায় রামু উপজেলার দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নের সাদরপাড়া এলাকায় সাবেক ইউপি সদস্য হাজ¦ী শামসুল আলমের সভাপতিত্বে আয়োজিত সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, রামু উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মিজানুর রহমান, দৈনিক আমাদের সময় এর রামু প্রতিনিধি সোয়েব সাঈদ।
উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা মো. জাকারিয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা মো. মাহবুবুল আলম। অনুষ্ঠানে উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা মোস্তফা জাবেদ চৌধুরী, বীজ প্রত্যয়ন এজেন্সির প্রতিনিধি, সমাজসেবক নুরুল আলম, স্থানীয় কৃষক নুরুল আমিন, আবদু জব্বার, ছৈয়দুল হক, আমির হোছন, মোজাম্মেল হক, আবু বক্কর, ওবাইদুল হক প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।
অনুষ্ঠান চীনা বাদাম প্রদর্শনীর চাষি নজির আহমদ বলেন, তিনি প্রায় আড়াই একর জমিতে বাদাম চাষ করে সফলতা পেয়েছেন। এরমধ্যে ১ একর জমিতে কৃষি অফিসের তত্ত্ববাধানে চাষাবাদ হয়েছে। চাষাবাদের বীজ, সার, কীটনাশক সবই তিনি বিনামূল্যে কৃষি অফিস থেকে পেয়েছেন। এখন এ জমি থেকে উৎপাদিত বাদাম তিনি বীজ হিসেবে স্থানীয় কৃষকদের বিক্রি করছেন। এতে স্থানীয় ২ শতাধিক কৃষক উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •