হামলার ভিডিও থামাতে হিমশিম ফেসবুক, ইউটিউব, টুইটার

সিবিএন ডেস্ক:
নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলার ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়া রোধ করতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হচ্ছে ফেসবুক, ইউটিউব ও টুইটারকে। এর আগে মসজিদের ভেতর ঢুকে বন্দুকধারীর নির্বিচারে মুসল্লি হত্যার ভয়াবহ ভিডিওটি না ছড়ানোর নির্দেশ দেয় নিউজিল্যান্ড পুলিশ। এরপরও ভিডিওটি কপি হয়ে ছড়িয়েই যাচ্ছিল।

গতকাল শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদে স্থানীয় সময় বেলা দেড়টার দিকে জুমার নামাজ আদায়রত মুসল্লিদের ওপর স্বয়ংক্রিয় রাইফেল নিয়ে হামলা চালান ব্রেনটন হ্যারিসন টারান্ট নামের এক অস্ট্রেলীয় যুবক। অল্পের জন্য ওই হামলা থেকে বেঁচে যান বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সদস্যরা। কাছাকাছি লিনউড মসজিদে দ্বিতীয় দফায় হামলা চালানো হয়। দুই মসজিদে হামলায় নিহত হয়েছেন ৪৯ জন। এর মধ্যে আল নুর মসজিদে ৪১ জন এবং লিনউড মসজিদে সাতজন নিহত হন। একজন হাসপাতালে মারা যান। আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৪০ জন।

হামলার সময় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে পুরো ঘটনা লাইভ করেন হামলাকারী। ভিডিওতে দেখা গেছে, বন্দুকধারী হামলার আগে প্রস্তুতি নিচ্ছেন। স্বয়ংক্রিয় বন্দুক নিয়ে গাড়ি থেকে নেমে মসজিদের দিকে যাচ্ছেন। মসজিদের প্রবেশকক্ষ থেকেই মুসল্লিদের ওপর নির্বিচারে বৃষ্টির মতো গুলি করা শুরু করেন। মসজিদের ভেতর ছুটোছুটিরত মুসল্লিদের প্রতি টানা গুলি করতে থাকেন। এরপর মসজিদের এক কক্ষ থেকে অন্য কক্ষে ঘুরে ঘুরে গুলি করতে থাকেন। গুলিবিদ্ধ হয়ে যাঁরা মসজিদের মেঝেতে লুটিয়ে পড়েছিলেন, তাঁদের দিকে ফিরে ফিরে গুলি করছিলেন তিনি।

ভিডিওটি অনলাইনে ছড়িয়ে পড়া শুরু করলে নিউজিল্যান্ড পুলিশ টুইটারে ভিডিওটি প্রচারের বিরুদ্ধে সতর্ক করে। পুলিশ ফুটেজটি অনলাইন থেকে সরিয়ে নেওয়ার কাজ শুরু করলেও তা অনলাইনে বহু সময় পর্যন্ত দেখা যায়।

ফেসবুকের অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের জন্য নীতিনির্ধারণ–বিষয়ক পরিচালক মিয়া গারলিক এক বিবৃতিতে বলেন, লাইভস্ট্রিম হতে থাকা ভিডিওটি নিয়ে নিউজিল্যান্ড পুলিশ ফেসবুকে সতর্ক করার কিছু সময়ের মধ্যে হামলাকারীর ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট সরিয়ে নেওয়া হয়। তবে ঠিক কখন ভিডিওটি সরানো হয়, তা নিয়ে আর কোনো মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানায় ফেসবুক।

টুইটার জানিয়েছে, হামলার সঙ্গে সম্পৃক্ত অ্যাকাউন্টটি তারা স্থগিত করেছে এবং তাদের প্ল্যাটফর্ম থেকে ভিডিওটি সরিয়ে নিতে কাজ করছে।

গুগল মালিকানাধীন ইউটিউব জানিয়েছে তারা সহিংস ভিডিওটি সরিয়ে নিয়েছে। গুগলের মুখপাত্র জানিয়েছেন, এ ব্যাপারে সতর্ক করার পরপরই তাঁরা ভিডিওটি সরিয়ে নিয়েছেন। ভিডিওটি কতক্ষণ প্রচার হওয়ার পর তা সরিয়ে নেওয়া হয়েছে, এ ব্যাপারে মন্তব্য করতে ইউটিউবও অস্বীকৃতি জানিয়েছে।

তবে প্রতিষ্ঠানগুলো ভিডিওটি সরিয়ে নেওয়ার কথা বললেও কপি হয়ে যাওয়া ভীতিজনক ভিডিওটিকে ফেসবুক, ইউটিউবে ঘুরতে দেখা যায়। ফলে, এ ধরনের ভিডিও নিজেদের প্ল্যাটফর্মে ছড়িয়ে পড়া বন্ধ করতে প্রতিষ্ঠানগুলোর সক্ষমতা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

কুতুবদিয়ায় ২ জনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার

শিক্ষকদের ওপর বেশি কর্তৃত্ব ফলান অশিক্ষিত ব্যবস্থাপনা কমিটি: শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেল

ভোটের মাধ্যমে ‘পুনর্গঠন’ চায় তৃণমূল বিএনপি

লামায় কমিউনিটি ক্লিনিক সংস্কার কাজে অনিয়ম দূর্নীতির অভিযোগ

নাইক্ষ্যংছড়ি কলেজের প্রভাষক আবদুস সাত্তার আর নেই : আসরের পর জানাজা

জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস পালনে কক্সবাজারে ব্যাপক প্রস্তুতি

নির্বাচন কমিশন সচিবের সংগে মতবিনিময় করলেন ঢাকাস্থ রামু সমিতি

বঙ্গবন্ধু বাংলার সাধারণ মানুষের ভালোবাসার কথা ভাবতেন : চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার

চট্টগ্রামে জব্বারের বলীখেলায় কুমিল্লার শাহজালাল চ্যাম্পিয়ন

বাংলাদেশ কমিউনিটি মেটস প্রবাসীদের ১লা বৈশাখ উদযাপন

চকরিয়ায় পাওনা টাকা দাবির জেরে বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর, আহত ৬

ইউজিপি-থ্রি প্রকল্প পরিচালকের কলাতলী – মেরিন ড্রাইভ চলমান কাজ পরিদর্শন

দারুল আরক্বম তাহফীযুল কুরআন মাদরাসার সবিনা অনুষ্ঠান সম্পন্ন

আলোকিত উখিয়ায় প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

আদালতের আদেশনামা গোপন করে শপথ নিয়েছে জমিরী- রফিক উদ্দীন

জেরায় বিমর্ষ সোনাগাজী থানার সেই ওসি মোয়াজ্জেম

পেকুয়ায় শরতঘোনা পয়েন্টে বেড়িবাঁধ বিলীন

পেকুয়ায় মুক্তিযোদ্ধার ছেলেকে হত্যাচেষ্টা

চকরিয়ায় অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থদের উপজেলা প্রশাসনের আর্থিক সহায়তা

কিশলয় বালিকা স্কুলে দুর্নীতি বিরোধী বির্তক প্রতিযোগিতা ও আলোচনা সভা