সৃষ্টি হবে কর্মসংস্থান, ডিজিটাল সেবা পাবে সাধারন জনগণ

চট্টগ্রামে হচ্ছে বিশ্বমানের হাইটেক পার্ক

তাজুল ইসলাম পলাশ, চট্টগ্রাম ব্যুরো:

পিছিয়ে থাকবেনা চট্টগ্রাম। যুগের সাথে তাল মিলিয়ে ডিজিটাল যুগের অংশ হিসেবে চট্টগ্রামে হচ্ছে বিশ্বমানের সফটওয়ার টেকনোলজি পার্ক ও ইনকিউবেশন সেন্টার (হাইটেক পার্ক)। ইতিমধ্যে পার্ক স্থাপনের জন্য প্রায় ১২ একর জমি দিয়েছে সিটি করপোরেশন (চসিক)। প্রায় ২০০ কোটি টাকা ব্যয়ে নগরীর বিএফআইডিসি রোড সংলগ্ন চাঁদগাও ও চর রাঙ্গামাটিয়া মৌজায় এবং আগ্রাবাদের ব্যাংকক-সিংঙ্গাপুর মার্কেটের ৬-১১ তলায় হবে এই স্থাপনা গড়ে তোলা হবে। ২০১৯ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত এ প্রকল্প বাস্তবায়নের মেয়াদ নির্ধারণ করা হয়।

এ নিয়ে গত সোমবার বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের (সিসিসি) পক্ষে প্রধান নির্বাহী মো. সামসুদ্দোহা চুক্তিতে সই করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। তিনি বলেন, আগামীতে বন্দরনগরী চট্টগ্রাম ডিজিটাল ব্যবসা বাণিজ্যের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হবে। চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে ইকোনমিক জোন হচ্ছে। যেটি শিল্পনগরে পরিণত হবে।

মন্ত্রী বলেন, আগামী ৫ বছরে দেশের সব কারখানায় ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহার করতে হবে। দেশে এমন কোনো ইউনিয়ন থাকবে না, যেখানে হাইস্পিড ইন্টারনেট থাকবে না। আগামীতে বন্দরের জাহাজ চলাচল থেকে এমনকি সিটি করপোরেশনের দৈনন্দিন কার্যক্রমও প্রযুক্তির ওপর নির্ভর করবে। এসময় মন্ত্রী চসিকের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের দূরদর্শিতার প্রশংসা করেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক, হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্ধিন বলেন, চট্টগ্রামে তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর কর্মসংস্থান সৃষ্টি, জনসাধারণের মাঝে ডিজিটাল সেবা নিশ্চিতকরণে এই পার্ক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

পার্কের উন্নয়ন প্রকল্প পরিচালক এএসএম সফিকুল ইসলাম বলেন, প্রযুক্তিগত ভাবে চট্টগ্রাম পিছিয়ে আছে। হাইটেম পার্ক স্থাপন করা হয়ে ডিজিটাল ব্যবসা বাণিজ্যের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হবে চট্টগ্রাম।

বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা যায়, এই সমঝোতার মাধ্যমে চলমান দুটি প্রকল্পের আওতায় একটি হাই-টেক পার্ক এবং একটি আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার স্থাপন করা হবে। নির্মাণের পর প্রথম ৩০ বছর এই পার্ক দুটি থেকে ৫০%-৫০% রাজস্ব সিটি করপোরেশন ও হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ ভাগাভাগি করে নিবে। পরবর্তী সময়ে এই চুক্তি নবায়ন হতে পারে। শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টারের মাধ্যমে একদিকে যেমন দক্ষ মানবসম্পদ সৃষ্টি হবে, তেমনি হাই-টেক পার্কে হবে তাদের কর্মসংস্থান।

এছাড়া হাই-টেক পার্কে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগের সুযোগ সৃষ্টির পাশাপাশি তৈরি হবে দেশীয় উদ্যোক্তা। তাছাড়া ‘কালিয়াকৈর হাইটেক পার্কের’ উন্নয়ন প্রকল্পের অর্থায়নে নির্মাণাধীন এ পার্কে ২ হাজার ৫০০ জনের প্রত্যক্ষ কর্মসংস্থান হবে। বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে প্রায় ২৪ কোটি ৩৮ লাখ কোটি টাকা ব্যয়ে এ পার্ক স্থাপন করা হচ্ছে। ২০১৮ সালের ১৮ জুলাই চসিক-হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের মধ্যে চুক্তি হয়।

চট্টগ্রামে ৩টিসহ সারা দেশে মোট ২৮টি হাইটেক পার্ক স্থাপন করার উদ্যোগ বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ। ইতোমধ্যে গাজীপুর, যশোর, ঢাকার কাওরান বাজারে হাইটেক পার্ক নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

একজন চেয়ারম্যান এইচ, কে, আনোয়ার এবং কাছ থেকে যা দেখা:

মাদককে ‘না’ জানালো মাদকসেবীরা

রে‌ডি‌য়েন্ট ফিস ওয়ার্ল্ড প‌রিদর্শনে জনপ্রশাসন প্র‌তিমন্ত্রী

আমি প্রকৃত নৌকা প্রেমিক, প্রমাণ করেই ছাড়ব -এমপি বদি

নৌকায় ভোট দিয়ে উন্নয়নের সুযোগ নিন : কায়সারুল হক জুয়েল

চকরিয়ায় মাঠ দিবস ও কৃষক সমাবেশ অনুষ্ঠিত

চকরিয়ায় দুইদিন ব্যাপী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা শুরু

বায়তুশ শরফ জব্বারিয়া এতিমখানায় বঙ্গবন্ধুর ৯৯ তম জন্ম দিবস উদযাপন

রামুতে আনারস প্রতিকের কর্মী সমর্থকদের হুমকি ও ভয়ভীতি প্রদর্শনের অভিযোগ

ইসলামাবাদে দুই দিনব্যাপি হিফজুল কুরআন ও ইসলামী সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা

গর্জনিয়া উচ্চবিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়ার উদ্বোধন

বাঘাইছড়িতে সেভেন মার্ডারে মামলা দায়ের,তদন্ত কমিটির বৈঠক চলছে

লিগ্যাল এইড দিবস উৎসবমূখর পরিবেশে পালন করতে হবে : জেলা জজ

সেই ঝিনুক বিক্রেতা রাফিয়া এখন গৃহবন্দী

সদরের বিভিন্ন এলাকায় ভাইস-চেয়ারম্যান প্রার্থী আবদুর রহমানের গণসংযোগ

পিটিআই’র বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ সম্পন্ন

চশমা মার্কার পক্ষে জনতার ভালোবাসার জোয়ার

তৃতীয় শ্রেণী পর্যন্ত পরীক্ষা থাকছে না

কিডনি রোগ থেকে বাঁচার উপায়

উখিয়ায় ভোরের ডাক পত্রিকার প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন