বিশেষ প্রতিবেদক

ইয়াবা ও তরুণীসহ বিজিবির হাতে আটক হয়েছেন নিজামুল হক নামের এক সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই)।

রোববার কক্সবাজারের মেরিন ড্রাইভ সড়কের রামুর পেঁচারদ্বীপ রেজুর ব্রিজ এলাকার যৌথ চেকপোস্টে কর্মরত বিজিবি সদস্যরা তাকে আটক করে।

এসময় তার কাছ থেকে ৩ হাজার ২০০ পিস ইয়াবা ও একটি মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়েছে।

আটকের পর তরুণীসহ তাকে জেলা পুলিশের বিশেষ শাখায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. ইকবাল হোসেন।

নিজামুল হক চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশে এএসআই হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ইয়াবা সংক্রান্ত ঘটনায় মাস দুয়েক আগে সাময়িক বরখাস্ত হন। নিজামুলের গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড থানা এলাকায়। তার সঙ্গে থাকা তরুণী হাসিনা আকতারের বাড়ি খাগড়াছড়ি।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, মেরিন ড্রাইভ সড়ক দিয়ে এক নারীসহ মোটরসাইকেল যোগে কক্সবাজারের দিকে আসছিলেন নিজামুল হক। রেজুর ব্রিজ চেকপোস্টে দায়িত্বরত বিজিবি সদস্যরা তাকে থামিয়ে তল্লাশি চালায়। তল্লাশিকালে তাদের কাছে ৩ হাজার ২০০ পিস ইয়াবা পাওয়া যায়। এসময় নিজেকে পুলিশের এএসআই পরিচয় দেয়ায় চেকপোস্টে দায়িত্বরতরা তাদেরকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে।

তিনি আরও জানান, খবর নিয়ে জানা গেছে নিজামুল হক চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশে এএসআই হিসেবে কর্মরত ছিলেন। সেখানে ইয়াবা সংক্রান্ত একটি ঘটনায় পুলিশ লাইনে ক্লোজড ছিলেন। এ ঘটনার প্রেক্ষিতে মাস দু’য়েক আগে সাময়িক বরখাস্ত হন।

এ অপকর্মের পরও অনুশোচনা বোধের পরিবর্তে নিজামুল তার বান্ধবী হাসিনাকে নিয়ে কক্সবাজার বেড়াতে যান। ফেরার পথে পূর্বের নিয়মে ইয়াবা খরিদ করে পাচারের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাচ্ছিলেন। বান্ধবীসহ তাকে পুলিশ সুপার কার্যালয়ে রেখে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ইকবাল হোসেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •