cbn  

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, লামা (বান্দরবান)

বান্দরবানের লামায় পাহাড়ের মাটি চাপা পড়ে ২জন শ্রমিক গুরুতর আহত হয়েছে। রোববার (১০ মার্চ) বিকেল ৫টায় উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের কমিউনিটি সেন্টার এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। স্থানীয় ইউপি মেম্বার মো. হোসেন মামুন এর নেতৃত্বে স্থানীয় লোকজন দ্রুত এগিয়ে এসে মাটি সরিয়ে ২জনকে বের করে।
আহতরা হল, আলী উল্লাহ (২২) পিতা- আলী জোহর, গ্রাম- সাপেরঘারা রইঙ্গাঝিরি, ফাঁসিয়াখালী, লামা, বান্দরবান ও মো. সেলিম (২৪), পিতা- অজ্ঞাত, হারগাজা, লামা, বান্দরবান। দুইজনই পেশায় শ্রমিক।
প্রত্যেক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, এলজিইডি লামা অফিসের তত্ত্বাবধানে ঠিকাদার নাজমুল হক চৌধুরী পিয়ারু কর্তৃক ইউনিয়নের আড়াইমাইল হতে কমিউনিটি সেন্টার পর্যন্ত ব্রিকসলিং সড়কের সংস্কার কাজ চলছে। সড়কের কয়েকটি স্থানে মেরামত ও সংস্কারের জায়গার বালুর পরিবর্তে পাহাড়ে মাটি দেয়া হচ্ছিল। কমিউনিটি সেন্টার বাজারের পশ্চিম পার্শ্বে একটি পাহাড় হতে রাস্তার জন্য পিকআপে করে মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছিল শ্রমিকরা। গর্ত করে মাটি কাটায় উপর থেকে পাহাড়ের মাটি ধসে পড়ে। এসময় অন্যরা সরে গেলেও ২জন শ্রমিক মাটি চাপা পড়ে। আলী উল্লাহকে অবচেতন অবস্থায় মাটি সরিয়ে বের করা হয়। তার কোন শ্বাস-প্রশ্বাস ছিলনা বলে প্রত্যেক্ষদর্শীরা জানায়। দ্রুত পার্শ্ববর্তী মালুমঘাট খ্রিস্টান মেমোরিয়াল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য তাকে নেয়া হয়। নিউজ লেখা পর্যন্ত তার শিরা চলছিল বলে জানায় হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার। অপর আহত মো. সেলিমকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়।
স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার মো. হোসেন মামুন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সাথে সাথে লোকজন দৌড়ে এসে তাদের বের না করলে দুইজনেই মারা যেত। আলী উল্লাহর অবস্থা আশংকাজনক। রাস্তার কাজে বালুর পরিবর্তে পাহাড়ের মাটি ব্যবহারের বিষয়টি দুুঃখজনক।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •