cbn  

সংবাদদাতা: কক্সবাজার সদরের ভারুয়াখালী বাজারসহ বিভিন্ন এলাকায় গনসংযোগে করেছেন ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আমজাদ হোসেন ছোটন রাজা।

৯ মার্চ বিকেল তিনটার দিকে মোটর শোভাযাত্রাসহ ভারুয়াখালী প্রবেশ করেন। পানিরছড়া বাজার হয়ে প্রবেশকালে রাস্তার দুই পাশে দাঁড়ানো শতশত জনতা করতালিতে জননেতা ছোটনের গাড়ি বহরকে স্বাগত জানায়।

এরপর ভারুয়াখালী ইউনিয়নের আনুর দোকান, ভারুয়াখালী বাজার, পশ্চিমপাড়া, সওদাগর পাড়া, সাবেক পাড়া, বানিয়ারপাড়ার সর্বস্তরের মানুষের সাথে কুশল বিনিময় করেন। বেশ কয়েকটি পথসভাও করেন ওখানে। সবার কাছে দোয়া, পরামর্শ ও ভোট প্রার্থনা করেন।

এদিকে, এই জনপদের পরিচিতমুখ প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা এসটিএম রাজা মিয়ার সুযোগ্য পুত্র এলাকায় যাওয়ার সংবাদে প্রচুর মানুষ ভিড় করে। তাকে দেখতে পাহাড়ি এই এলাকার বাসিন্দা নারী-পুরুষরা ঘর থেকে বেরিয়ে পড়ে।

ছোটন রাজা ভারুয়াখালীর বিভিন্ন এলাকায় যাওয়ামাত্র সাধারণ মানুষ তাকে বরণ করে নেয়। ছোটন রাজার পিতার পরিচিত মানুষজনও তাকে প্রাণ খুলে দোয়া করে দেয়।

তিনি পথসভা, গনসংযোগ ও শুভেচ্ছা বিনিময় করে পুরো দিনটি ওখানে কাটান। এমনকি সন্ধ্যা থেকে রাত নাগাদ তিনি বাড়ি বাড়ি গিয়ে মা বোনদের কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন।

নিবার্চনে এখন মুল ফ্যাক্টর ছোটন রাজা। জাতি-ধর্ম-বর্ণ শ্রেণি-পেশার কোনো ভেদাভেদ নাই। সবার কাছে যাচ্ছেন। দোয়া যাচ্ছেন। সকাল থেকে দুপুর, বিকাল থেকে সন্ধ্যা পেরিয়ে গভীর রাত অবধি গ্রামীন জনপদের মেঠোপথে ছোটনের গণসংযোগে ব্যাপক জাগরণ সৃষ্টি হয়েছে।

ছোটন রাজা কক্সবাজার সদর আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, সরকারী কলেজের প্রাক্তন ভিপি বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম এসটিএম রাজা মিয়ার সন্তান। তিনি ঈদগাঁও সাংগঠনিক উপজেলা শ্রমিকলীগ সভাপতির দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি  বিভিন্ন সামাজিক, ক্রীড়া, সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাথে যুক্ত রয়েছেন। ইতোমধ্যে বৃহত্তর ঈদগাঁও প্রত্যেকটা ইউনিয়নের দলের বাইরে গিয়েও তিনি সর্বশ্রেণীর মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্যতা পেয়েছেন। মতবিনিময় করে একক প্রার্থী হিসেবে সমর্থন আদায় করেছেন দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •