সেলিম উদ্দীন, ঈদগাঁও

চকরিয়া উপজেলার খুটাখালী বাজারে মোবাইল অপারেটর কোম্পানি রবি’র নেটওয়ার্ক বিপর্যয়ে গ্রাহকরা অতিষ্ট হয়ে উঠেছে। ঘন ঘন নেটওয়ার্ক আসা যাওয়া,কলড্রপ,নো নেটওয়ার্ক কভারেজ,কল ফেইলড ও কমিউনিকেশন এ্যারোর কারনে চরম বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন গ্রাহকরা। কয়েক মাস ধরে এ সমস্যা হলেও রবি কর্তৃপক্ষ সমস্যা সমাধানে স্থায়ী কোন পদক্ষেপ নেয়নি বলে অভিযোগ রবি’র গ্রাহকদের।
মোবাইল ফোনের নেটওয়ার্ক বিপর্যয় চরম আকারে চলে যাওয়ায় সব ধরণের মোবাইল ফোন ও ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে। ৬ মার্চ বুধবার সকাল থেকে এই সমস্যা বিদ্যমান।
জানা গেছে, নেটওয়ার্ক সমস্যার কারণে অনেকে মেইল পাঠাতে পারেননি। তবে তুলনামুলক কিছুটা হলেও সচল ছিল গ্রামীণ ফোন। আর খুবই খারাপ ছিল রবি নেটওয়ার্ক।
খুটাখালীতে বিপুল সংখ্যক মোবাইল ফোন অপারেটর থাকলেও নেই কাস্টমার কেয়ার।এসব কারনে
রবির গ্রাহকরা ভোগান্তির চরম পর্যায়ে দিনাতিপাত করছে। নেটওয়ার্ক বিপর্যয়, নিবন্ধিত সিম বিনা কারণে স্থগিত, থ্রী-জির নামে ইন্টারনেটের মন্থর গতি সহ নানামুখী প্রতারণা অব্যাহত রয়েছে।
এদিকে নেটওয়ার্ক থাকার পরও কল না যাওয়ায় ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে রবির সাধারণ গ্রাহকদের।
অন্যদিকে ইন্টানেটের মন্থর গতির কারণে অফিসিয়াল কাজকর্ম করাও দুরূহ ব্যাপার হয়ে পড়েছে। রবি জোন হিসেবে খুটাখালীর প্রায়ই মানুষ প্রথম থেকে রবি নাম্বার ব্যবহার করলেও সম্প্রতি রবির ভোগান্তিতে অতিষ্ট হয়ে পড়েছে সাধারণ গ্রাহক।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক রবি গ্রাহক জানায়, ব্যক্তিগত নামে নিবন্ধিত দীর্ঘদিনের পুরোনো নাম্বার বিনা কারণে সাময়িক স্থগিত করা হচ্ছে। সিমটি চালু করার জন্য কাষ্টমার কেয়ারে অভিযোগ দিয়েও কাজ হয়না।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে দায়িত্বরত কর্মকর্তা মাহফুজ বলেন, সিম স্থগিত করার ব্যাপারে তাদের কোন হস্তক্ষেপ নেই। বিষয়টি বিটিআরসি নিয়ন্ত্রণ করছে বলে তিনি জানান।
রবি গ্রাহকদের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে ব্যবহৃত নাম্বার গ্রাহককে জ্ঞাত না করে রবি কোম্পানীর এক শ্রেণির অসাধু কর্মকর্তাদের যোগসাজসে ব্যবহৃত নাম্বার অন্য জনের নিকট হস্তান্তর করে। ফলে প্রতিনিয়ত ঘটছে বিপত্তি।
শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, গত দুইদিন ধরে রবি গ্রাহকরা চরম দুর্ভোগে আছি। নিয়মিত ইন্টারনেট ব্যবহার করতে না পারায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, ইউটিউব এবং অনলাইন সংবাদপত্র পড়াসহ ভার্সিটি সংক্রান্ত তথ্য পেতে নানামুখী সমস্যায় দিনাতিপাত করছি।
রবির নেটওয়ার্ক বিপর্যয়ের ফলে কোন কাজকর্ম করাই সম্ভব হচ্ছে না। ফলে এখন অন্য অপারেটর ব্যবহার করার চিন্তা করতে হচ্ছে।
নেটওয়ার্ক বিপর্যয়ের ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে রবির কাস্টমার কেয়ারে লাইনে থাকা কথা বলে টাকা গুলো কেটে নেওয়া হচ্ছে বলে ও অভিযোগ অহরহ।
রবির এই চরম নেটওয়ার্ক বিপর্যয় অব্যাহত থাকলে অতিশীঘ্রই গ্রাহক হারাতে পারে বলে আশংকা প্রকাশ করা হচ্ছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •