তাজুল ইসলাম পলাশ, চট্টগ্রাম :

চট্টগ্রামের শাহ আমানত আর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের জরুরি অবতরণ করা উড়োজাহাজ থেকে অস্ত্রধারী ওই ব্যক্তিকে আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তবে ওই ব্যক্তির পরিচয় এখনও জানানো হয়নি।

এয়ার ভাইস মার্শাল মফিদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চত করে বলেন, কেবিন ক্রু দু’জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। উড়োজাহাজে আর কোনো যাত্রী জিম্মি নেই। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক। বিমানবাহিনীর কর্মকর্তা এয়ার ভাইস মার্শাল মফিদুর রহমানের নেতৃত্বে সেনাবাহিনী, র‌্যাব, পুলিশের সম্মিলিত অভিযানে অস্ত্রধারীকে আটক করা হয়।

অল্প সময়ের মধ্যেই সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে বলে জানান মফিদুর রহমান।

এর আগে, বিমানের বিজি-১৪৭ নম্বর ফ্লাইটটি চট্টগ্রাম থেকে দুবাই যাওয়ার কথা। কিন্তু উড্ডয়নের পরপরই এ ঘটনা ঘটে। পরে দ্রুত ফ্লাইটের সব যাত্রীকে নামিয়ে দেয়া হয়। বিমানবন্দর সূত্রের বরাত দিয়ে একাধিক সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, যাত্রীদের নামিয়ে আনলেও দুইজন ক্রু প্লেনের ভেতরে রয়েছেন। ভেতরে গুলির শব্দ শোনা গেছে। কেউ একজন তাতে আহত হতে পারেন বলেও ধারণা করা হচ্ছে।

দায়িত্বশীল সূত্রে জানা যায়, অস্ত্রধারী একজন উড়োজাহাজটি ছিনতাইয়ের চেষ্টা করেছেন। ওই ফ্লাইটের যাত্রীরা সবাই বেরিয়ে এলেও দু’জন কেবিন ক্রু ভেতরে আটকা পড়েন। এসময় উড়োজাহাজটি ঘিরে রাখে পুলিশ, র‌্যাব, এপিবিএনসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

পরে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একটি বিশেষ কমান্ডো টিম। সেখানে পুলিশ, র‌্যাব, এপিবিএনসহ সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের নিয়ে সম্মিলিত অভিযান চালানো হয় উড়োজাহাজটিতে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •