সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ
কক্সবাজার পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের কুতুবদিয়া পাড়ায় সাদিয়া সুলতানা নূরী (৯) নামের শিশুকে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে এলাকার সর্বস্তরের মানুষ।
স্থানীয় বাসিন্দাদের পক্ষে মোহাম্মদ হোসেন, আবছার মিয়া, মোহাম্মদ রফিক, সাজেদা বেগম গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে বলেন, স্কুল পড়ুয়া অবুঝ একজন শিশুকে এভাবে মারধর করা খুবই নিন্দনীয় ও দুঃখজনক ঘটনা। কেন, কোন উদ্দেশ্যে একজন শিশুকে মারধর করা হলো? তা তদন্তের দাবি রাখে৷ ঘটনার সাথে কারা জড়িত-তা তদন্ত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।
বিবৃতিতে তারা বলেন, ভিকটিম শিশুটির মা রোজিনা আক্তার মাদক ব্যবসাসহ বিভিন্ন অপকর্মের সাথে জড়িত। প্রভাবশালীদের সাথে তার গোপন খাতির থাকায় ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়ে যাচ্ছে। রোজিনার অপকর্মের প্রতিবাদ করায় উল্টো আমাদের বিরুদ্ধে উঠে পড়ে লেগেছে। মিথ্যা মামলা ও অভিযোগসহ নানাভাবে হয়রানি করছে।
ভুক্তভোগী মোহাম্মদ হোসেন, আবছার মিয়া, মোহাম্মদ রফিক, সাজেদা বেগম বলেন, যে সময়ে শিশু সাদিয়া সুলতানা নূরীকে পেটানোর অভিযোগ তোলা হয়েছে- ওই সময়ে আমরা কোথায় ছিলাম? আদৌ ঘটনায় আমাদের কোন ধরনের সম্পৃক্ততা ছিল কিনা? তা আমাদের মোবাইল ট্রেকিং করলে বেরিয়ে আসবে। সংশ্লিষ্ট প্রশাসন ও এলাকাবাসীকে বিষয়টি রহস্য উদঘাটনের অনুরোধ করছি।
বৃহত্তর সমিতি পাড়ার লোকজন জানিয়েছে, রোজিনার অপকর্মের বিরুদ্ধে এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে। তার অপকর্মের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চেয়ে বেশ বিক্ষোভ-মানববন্ধন হয়েছে। এরপর থেকে প্রতিবাদকারীদের ফাঁসানোর জন্যে বিভিন্ন ফন্দি অবলম্বন করতে থাকে রোজিনা। তার পূর্ব পরিকল্পিত কূটচালের অংশ হিসেবে নিজের মেয়েকে ভিকটিম সাজিয়ে প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর জন্য এই ঘটনা ঘটিয়েছে। তা সঠিক তদন্ত করলে বেরিয়ে আসবে।
ঘৃণিত ও নিন্দনীয় এমন কাজ সঠিক তদন্ত করার জন্য এলাকার সর্বস্তরের মানুষ প্রশাসনের কাছে দাবি জানিয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •