বাঁধা দিলে চাঁদাবাজি মামলা দেয়ার হুমকি

কালিরছড়ায় জোরপুর্বক টিলা ও জমি থেকে মাটি কাটা অব্যাহত

বিশেষ প্রতিবেদক :

কক্সবাজার সদর থানাধীন মেহেরঘোনা রেঞ্জের কালিরছড়া বনবিটের অধীনে কানছিরাঘোনা ও পেতাবা কাটা নামক স্থানে পরিবেশ ও বনবিভাগের অনুমতি ছাড়া এমনকি ভুমি মালিকদের ক্ষতিপুরন না দিয়ে মাটি কাটা অব্যাহত রয়েছে। জমির মালিকগন চায়না টিকাদারের অফিসে ধর্না দিয়েও কোন সুরাহা পাচ্ছেনা।

ঘটনার বিবরনে জানাযায়,রশিদ নগর নতুন বাজার এলাকার ৩ কিলোমিটার পুর্বে পেতাবা কাটা নামক স্থানে কয়েক কিলোমিটার এলাকা জুড়ে জমি ও পাহাড় সমুহ কেটে সাফ করে ফেলা হয়েছে।ব্যাপকভাবে বন কর্তন করা হলেও প্রশাসন রয়েছে নীরব।কারন হিসেবে উন্নয়ন কর্মকান্ড সচল করার কথা বলা হলেও স্থানীয় জনপ্রতিনিধির প্রত্যক্ষ মদদে জনৈক এন্তাজ কাউকে পরোয়া করছেনা।মাটি কাটার সময় কার ও অনুমতি নেয়ার প্রয়োজন ও মনে করছেনা।ফলে দিনে দিনে সাধারন মানুষ চাষবাস করার জমি হারাচ্ছে।

কালিরছড়া ফরেষ্ট অফিসের বনজায়গীরদার তোফায়েল আহমেদ টুলু জানান,বিগত ১০০ বছর যাবত আমার বাপ দাদার আমল থেকে বন বিভাগের ৩ কানি জমি চাষ করে চলি কিন্তু সন্ত্রাসীরা আমার দেড় কানি জমি অস্ত্রের মুখে কেটে নিয়ে গেছে।মেহেরঘোনা রেঞ্জ অফিসে অভিযোগ করে ও কোন লাভ হয়নি।

ঈদ্গাও ইউনিয়ন পরিষদের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার জনাব কামাল উদ্দিন জানান,আমার পরিবারের ৫ কানি জমি স্কেবেটার দিয়ে জোরপূর্বক কেটে নিয়ে গেছে।টাকা তো দুরের কথা অনুমতি নেয়ার প্রয়োজন ও মনে করেনি।

চায়না কন্সট্রাকশন কম্পানিতে কর্মরত জনাব সাহাদাত হোসেন জানান,উন্নয়ন কাজে বাধা দেয়া যাবেনা প্রয়োজনে স্থানীয় থানায় কাগজপত্র নিয়ে অভিযোগ দেয়া যেতে পারে।

জেলা বঙ্গমাতা পরিষদের সমাজকল্যান সম্পাদক ও স্থানীয় সমাজকর্মী নুরুল আমিন সোনা মিয়া জানান,যারা জোরপুর্বক মাটি নিয়ে যাচ্ছে তাদের হাতে জমির মালিকানা বা চুক্তিপত্র নেই,সরেজমিনে পরিদর্শনে কোন জমির মালিককে টাকা দেওয়া হয়েছে তেমন কোন প্রমান পাওয়া যায়নি।প্রশাসনের উচিত উন্নয়ন কর্মকান্ড সচল রাখার পাশাপাশি জমির মালিকগনের সবার্থকে সুরক্ষা দেয়া।

এলাকার সচেতন মহলের দাবী,অবিলম্বে অপহরন চক্রের মুল হোতা, যারা এখন অস্ত্রের মুখে জমির মাটি নিয়ে যাচ্ছে তাদের কে গ্রেফতার পুর্বক এলাকার মাটি ও মানুষের শান্তি নিশ্চিত করা হউক।

 

সর্বশেষ সংবাদ

চকরিয়া থানার ওসি’র সাথে বৌদ্ধ সুরক্ষা পরিষদের সৌজন্য সাক্ষাৎ

“ঘূর্ণিঝড় ফনি, কক্সবাজার উখিয়া চাকরীর মেলার জন্য হল শনি!”

কর্ণফুলীসহ ৫ নদী নিয়ে মাস্টারপ্ল্যান তৈরি করা হয়েছে : নৌ প্রতিমন্ত্রী

আনসার সদস্য কাশেমের যাতায়াত বিমানে, থাকেন বিলাসবহুল হোটেলে

চকরিয়ায় বিদ্যুৎ অফিস ঘেরাও করল বিক্ষুব্ধ মুসল্লীরা

লিংকরোডে এ.কে মটরস এর শো-রুম উদ্বোধন

পোকখালীতে গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

ট্রাকের তেলের ট্যাংকে লুকানো ৫০ হাজার ইয়াবাসহ ২ পাচারকারী আটক

সাংবাদিক সংসদ কক্সবাজার’র নতুন কমিটি গঠিত

বিজিবির পোশাক পরে শো-রুম থেকে ৫০টি স্মার্টফোন ছিনতাই

হজযাত্রীদের ভিসা আবেদনের আগে বিমানের টিকিট কিনতে হবে

ছাত্রলীগের একজনকে স্থায়ী ও চারজনকে সাময়িক বহিষ্কার

কক্সবাজার ট্রাভেল এজেন্ট এসোসিয়েশনের কমিটি পুনর্গঠন

কেএফসিতে এতিম শিশুদের সম্মানে ইফতার মাহফিল

সিয়াম সাধনার মাধ্যমে তাকওয়াভিত্তিক সমাজ বিনির্মাণ করতে হবে

সাধু সেজে চাঁদাবাজি!

গুহায় মোদির ধ্যান নিয়ে টুইঙ্কেলের তিরস্কার!

চট্টগ্রামস্থ চকরিয়া সমিতির ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

জালিয়াত চক্রের হোতা বেলাল গ্রেপ্তার

‘বাঁধন’ কক্সবাজার সরকারি কলেজ পরিবারের ইফতার মাহফিল সম্পন্ন