স্কাইপে তারেকের বৈঠক, নির্বাচনি ট্রাইব্যুনালে মামলা করার সিদ্ধান্ত বিএনপির

ডেস্ক নিউজ:

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের বিষয়ে সারাদেশের ৬৪ জেলা থেকে হাইকোর্টের নির্বাচনি ট্রাইব্যুনালে মামলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি। দলের স্থায়ী কমিটির কয়েকজন সদস্য মামলা না করার বিষয়ে অবস্থান নিলেও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান তা আমলে নেননি।

আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারির মধ্যে সবগুলো জেলার প্রতিনিধিদের হাইকোর্টে মামলা করতে বলা হয়েছে। গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) অনুযায়ী, নির্বাচনের ৪৫ দিনের মধ্যে নির্বাচনি ট্রাইব্যুনালে মামলা দায়ের করতে হয়।
শনিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) দুই পর্বে প্রায় ৪০টি জেলার প্রতিনিধিদের সঙ্গে অনুষ্ঠিত বৈঠকে এ সিদ্ধান্তের বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া হয়। বৈঠকে অংশ নেওয়া অন্তত চারজন বিএনপি নেতা জানান, স্কাইপে দুই গ্রুপে অংশগ্রহণকারীদের সঙ্গে কথা বলেন তারেক রহমান। প্রথম পর্ব ঘণ্টা দুয়েক স্থায়ী হলেও পরের পর্বে দেড় ঘণ্টা কথা বলেন লন্ডনে অবস্থানরত তারেক রহমান।

বৈঠকের বিষয়ে জানতে চাইলে কিশোরগঞ্জ জেলা সভাপতি শরিফুল আলম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘নির্বাচনের পর ফলোআপ করতেই ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান আমাদের সঙ্গে কথা বলেছেন। তিনি প্রায় সব জেলার নেতাদের ডেকে কথা বলবেন। বৈঠকে নির্বাচন নিয়ে নানা বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।’
বৈঠকে তারেক রহমান একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের বিষয়ে প্রত্যেক আসন ধরে ফল পর্যালোচনা করার নির্দেশ দেন। পরে স্থায়ী কমিটির অন্যতম একজন সদস্যের বাধার কারণে তা থেকে সরে আসে বিএনপি। নির্বাচনের পর জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনি ট্রাইব্যুনালে মামলার করার বিষয়ে সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত নিলেও স্থায়ী কমিটির কয়েকজন সদস্য মামলা করতে অনুৎসাহিত করেন। এরপর গত বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) লন্ডন থেকে তারেক রহমান নির্বাচনি ট্রাইব্যুনালে মামলা করতে ফের নির্দেশ দেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে শনিবার দুই পর্বে প্রায় ৪০ জেলার নেতাদের সঙ্গে স্কাইপে কথা বলেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান।
বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘নির্বাচনি ট্রাইব্যুনালে মামলার বিষয়ে আমাদের সিদ্ধান্ত হয়েছে। আগামী ১৫ তারিখের মধ্যে আমরা মামলা করবো।’

বৈঠকে অংশ নেওয়া একাধিক প্রতিনিধি জানান, নির্বাচনি ট্রাইব্যুনালে মামলা করার প্রস্তুতি এরই মধ্যে বিএনপির প্রার্থীরা শুরু করেছেন। ‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পোস্টমর্টেম’ শীর্ষক কাজটি ভোটাধিকার আন্দোলনের শিরোনামে এখন সারাদেশেই হবে। এ নিয়ে বাংলা ট্রিবিউন গত ৫ ফেব্রুয়ারি বিশেষ প্রতিবেদন প্রকাশ করে।
শনিবার বৈঠক প্রসঙ্গে বিএনপির তিন জেলা সভাপতি বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, ৬৪টি জেলা থেকে একটি করে মামলা করা হবে নির্বাচনি ট্রাইব্যুনালে। প্রত্যেকটি আসন থেকে প্রত্যেক প্রার্থীকেই একসঙ্গে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করার নির্দেশ দিয়েছেন তারেক রহমান।
সিলেট বিভাগের দুইজন নেতা বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, তারেক রহমান নিজেই সংশ্লিষ্ট ৬৪ জনকে চূড়ান্ত করেছেন। শনিবারের বৈঠকে অংশগ্রহণকারী প্রত্যেকেই তারেক রহমানের মাধ্যমে সিলেক্টেড হয়েছেন। দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ আমন্ত্রণ জানান নির্বাচিত নেতাদের।

সর্বশেষ সংবাদ

নাইক্ষ্যংছড়িতে প্রতিপক্ষের হামলায় উখিয়ার যুবক খুন

মোমবাতির আগুনে পুড়লো ৪টি বসতবাড়ি : ৪০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি

কক্সবাজার-চট্টগ্রাম সড়কে দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ

হোটেল সীগালে অগ্নি প্রতিরোধ, নির্বাপন ও চিকিৎসা বিষয়ক প্রশিক্ষণ

নাইক্ষ্যংছড়িতে ৫ কোটি ৭৭ লাখ টাকার উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করলেন বীর বাহাদুর

প্রেমিককে ভিডিও কলে রেখেই ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে পড়েন প্রেমিকা

‘২ বছরের মধ্যে কুতুবদিয়ায় জাতীয় গ্রীড থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত হবে’

ঈদগাঁওতে যুবলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা

সুপারবাগ: বাংলাদেশে আইসিইউ-তে রোগী মৃত্যুর বড় কারণ!

৪০ তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলায় কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের প্রথম স্থান অর্জন

পান-সিগারেট খেয়ে ক্লাসে যেতে পারবেন না শিক্ষকরা

যুবলীগ নেতাসহ দুই যুবককে ছুরিকাঘাত করলো কেরুনতলীর সন্ত্রাসীরা

বনানী কবরস্থানে জায়ানের দাফন সম্পন্ন

ঈদগাঁওতে পল্লীবিদ্যুতের ভেল্কিবাজিতে  জনজীবন অতিষ্ঠ

মহেশখালীতে প্রেমপ্রস্তাবে ব্যর্থ হয়ে তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা ও হামলা আহত ২

সিএসবি সম্পাদক পলাশ বড়ুয়া’র জন্মদিন উদযাপন

ফোন চুরি যাওয়ায় সাংবাদিকদের আটকে রাখলেন শমী কায়সার!

টেকনাফে ইয়াবাসহ ৪ যুবক আটক

শ্রীলঙ্কায় হামলা : পদত্যাগ করছেন পুলিশের আইজি

মার্চ জুড়ে নির্বাচন সত্বেও আইনশৃঙ্খলা স্বাভাবিক থাকায় এসপি’র সন্তোষ প্রকাশ