ডেস্ক নিউজ:

“আগে পুনর্বাসন, পরে অধিগ্রহণ” এই স্লোগানকে সামনে রেখে “মহেশখালীর জাগ্রত ছাত্রসমাজ” এর ব্যানারে একটি মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। এতে চট্টগ্রামে অবস্থানরত বিভিন্ন কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। শুক্রবার বিকেল চারটার দিকে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মহেশখালীতে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্পসহ চলমান অন্যান্য প্রকল্পে ভূমি অধিগ্রহণকৃত এলাকায় ব্যাপক অনিয়ম-দুর্নীতি বন্ধে এবং জমির উপযুক্ত মূল্য ও যথাযথ ক্ষতিপূরণ প্রদানের দাবিতে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

বেপজিয়ার এক্সিকিউটিভ সেক্রেটারি, মোস্তফা জুয়েলের সঞ্চালনায় ও সংগঠনের আহবায়ক ছাত্রনেতা ফজলে আজিম মো. ছিবগতুল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন- মহেশখালী পেশাজীবি সমবায় সমিতির অর্থ সম্পাদক  আকতার হোসেন, চট্টগ্রাম জজকোর্টের আইনজীবী এডভোকেট রফিকুল ইসলাম, ব্যবসায়ী নেতা জয়নাল আবেদীন, আ ন ম আহমদুল্লাহ, জোয়ারিয়ানালা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সভাপতি বাইজিদ ইমন, “আমরা মাতারবাড়ীর সন্তান” এর সমন্বয়ক এনামুল হক সাগর, হোয়ানক সিভিল ইয়ুথ সোসাইটির সভাপতি মেহেদী হাসান পাভেল, বিপিএড সরকারি কলেজের প্রভাষক নূর মোহাম্মদ, মো. মামুন, চমেক, আঃ মতিন, চুয়েট, শাহাদত হোসাইন, ছাত্রনেতা, চবি, মোরশেদ আলম, ছাত্রনেতা, এমইএস কলেজ, দিল মোহাম্মদ, সিটি কলেজ আবু নায়েম,চট্টগ্রাম কলেজ, নুরুল হোছাইন আলতাফ প্রমুখ।

মানববন্ধন শেষে সংগঠনের যুগ্ন-আহবায়ক সালাহউদ্দিন কাদের আগামী ১৪ ও ১৫ ই ফেব্রুয়ারি মহেশখালীতে বিশাল গণসংযোগ এবং ১৬ই ফেব্রুয়ারি কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •