নিজস্ব প্রতিবেদক:
কক্সবাজার সদর উপজেলা গেইট এলাকার দক্ষিণ হাজীপাড়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে পপি নামের এক মহিলার উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে ছুরিকাঘাত করেছে দুবৃর্ত্তরা।  বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে বসতবাড়ির নিচতলায় এ ঘটনা ঘটে। এসময় ওই মহিলার চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। দ্রুত আহত মহিলাকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ছুরিকাঘাতের শিকার ফাহিমা আক্তার পপি দক্ষিণ হাজীপাড়ার নেজাম উদ্দিনের স্ত্রী।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ফাহিমা আক্তার পপি জানান, উত্তর হাজীপাড়া এলাকায় তার স্বামী নেজাম উদ্দিন ৫ শতক জমি ক্রয় করেন। ওই জমিটি দখলের জন্য বেশ কিছুদিন ধরে চেষ্টা করে আসছিলেন স্থানীয় নাছিমা আক্তার ফকু নামের এক মহিলা। এ বিষয়ে তার বিরুদ্ধে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় অভিযোগও দায়ের করেন তার স্বামী নেজাম উদ্দিন।  বুধবার দুপুরে কক্সবাজার সদর মডেল থানার এএসআই কামাল হোসেন ওই অভিযোগের তদন্তে যান। ঘটনাস্থলে পুলিশ তদন্তে যাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে নেজাম ও পপিকে হত্যার উদ্দেশ্যে ফকু সন্ত্রাসী ভাড়া করেন এবং হাঁকাবকা করেন। এর অংশ হিসেবে গতকাল রাত সাড়ে ৮টার দিকে পপি বাড়ির নিচ তলায় নামলে পূর্ব থেকে উৎঁেপতে থাকা নাছিমা আক্তার ফকু ও সোহেলের নেতৃত্বে ৫/৬ জনের একটি সন্ত্রাসী দল অতর্কিত ভাবে পপি’র উপর ঝাঁপিয়ে পড়েন। এসময় সন্ত্রাসীরা পপি’র শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাত করেন। পপি’র চিৎকারে লোকজন এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা দ্রুত পালিয়ে যায়। এলাকাবাসী পপিকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে দ্রুত কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান পপি’র স্বামী নেজাম উদ্দিন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •