সোয়েব সাঈদ, রামু:
রামুতে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইনে (২য় রাউন্ড ২০১৮) উপলক্ষে অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (৬ ফেব্রুয়ারি) রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মিলনায়তনে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মিছবাহ উদ্দীন আহমদ।

সভায় জানানো হয়, শনিবার ৯ ফেব্রুয়ারী সারাদেশে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইেন (২য় রাউন্ড ২০১৮) অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ৬ মাস থেকে ১ বছর বয়সী সকল শিশুকে ১টি করে নীল রঙের এবং ১ বছর থেকে ৫ বছর বয়সী সকল শিশুকে লাল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। রামুতে চাহিদা অনুযায়ী ৭ হাজার ২৫২ জনকে নীল রঙের এবং ৪৫ হাজার ৪৭৪ জনকে লাল রঙের ক্যাপসুল সরবরাহ করা হয়েছে। ঐদিন সকাল ৮ টা থেকে নিকটস্থ টিকাদান কেন্দ্রে গিয়ে এসব বয়সী শিশুদের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর অনুরোধ জানিয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা। তিনি জানান, ভিটামিন ‘এ’ অপুষ্টিজনিত অন্ধত্ব থেকে শিশুদের রক্ষা করে, শিশুর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে, ডায়রিয়ার ব্যাপ্তিকাল ও জটিলতা কমায়। বাংলাদেশে ভিটামিন ‘এ’ এর অভাবজনিত সমস্যা প্রতিরোধে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে জাতীয় পুষ্টি সেবা, জনস্বাস্থ্য পুষ্টি প্রতিষ্ঠান বছরে দুইবার জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন করে থাকে।

সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সাদেকুর রহমান, রামু হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আবদুল্লাহ আল কাওসার, রামু থানার উপ-পরিদর্শক ছানা উল্লাহ, রামু কেন্দ্রীয় সীমা বিহারের আবাসিক পরিচালক প্রজ্ঞানন্দ ভিক্ষু, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি সাংবাদিক নীতিশ বড়–য়া, সূর্য্যরে হাসি ক্লিনিকের ম্যানেজার খন্দকার দেলোয়ার হোসেন, মেডিকেল অফিসার ডা. দিদারুল আলম, মুক্তি কক্সবাজারের উপজেলা ম্যানেজার দুলাল বড়–য়া, ব্র্যাক এর উপজেলা ব্যবস্থাপক আবু আহমেদ মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ইপিআই) আলী আকবর প্রমূখ। কম্পিউটার অপারেটর ধীমান বড়–য়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি, ধর্মীয় নেতা, সাংবাদিক এবং উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তাকর্মচাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •