চট্টগ্রাম ব্যুরো:

চট্টগ্রামে ১৪হাজার ইয়াবাসহ আটক বাকলিয়া থানার এসআই খন্দকার সাইফুদ্দিনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। বুধবার (৬ ফেরুয়ারি) মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারোয়ার জাহানের আদালতে আত্মসমর্পণ করলে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) কাজী শাহাব উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘খন্দকার সাইফুদ্দিন আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করলে আদালত তা নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন। একটি সূত্র জানায়, এসআই খন্দকার সাইফুদ্দিন উচ্চ আদালত থেকে জামিনে গিয়ে পরে পলাতক ছিলেন।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ৩০ জুলাই রাতে বাকলিয়া হাফেজনগর এলাকায় এসআই খন্দকার সাইফুদ্দিনের ভাড়া বাসায় অভিযান চালিয়ে ১৪ হাজার ১০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। ইয়াবা ছাড়াও তার বাসা থেকে ইয়াবা বিক্রির নগদ ২ লাখ ৩১ হাজার ৬৩০ টাকা, ৪ টি মোবাইল ফোন, ৩টি ট্যাব ও পুলিশের কিছু ইউনিফর্ম উদ্ধার করা হয়। এ সময় বাসা থেকে নাজিম উদ্দিন মিল্লাত (৩০) নামে খন্দকার সাইফুদ্দিনের এক সহযোগীকে আটক করে র‌্যাব। তার সহযোগীকে আটকের খবর পেয়ে পালিয়ে যান সাইফুদ্দিন। ৩১ জুলাই সাইফুদ্দিনকে সাসপেন্ড করা হয়। এ ঘটনায় চকবাজার জোনের সিনিয়র সহকারী কমিশনার নোবেল চাকমাকে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করে সিএমপি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •