সংবাদদাতাঃ
টেকনাফ শামলাপুর নয়াপাড়ায় অবস্থিত আবুল কালাম নামের বাড়িতে আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেওয়ার ব্যর্থ চেষ্টা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গত ৩০ জানুয়ারি দিবাগত রাত ২টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

বাড়িতে আগুন দেওয়ার সুযোগ না পেয়ে প্রথমে বাড়ির পাশে অবস্থিত খড়ের স্তুপে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। যখন খড়ের স্তুপে আগুন ধরে যায় তখন এলাকার প্রতিবেশিরা দেখতে পেয়ে আবুল কালামের পরিবারকে ঘুম থেকে জাগিয়ে তুলে।

সে মুহুর্তে একদল সেনাবাহিনি রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় আগুন দেখতে পান এবং তারা সেখানে এসে উপস্থিত হন।
সেনাবাহিনি ও পাড়ার প্রতিবেশিরা সবাই মিলে আগুন নেবানোর অনেক চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। পরবর্তিতে আবুল কালাম এবং সেনাবাহিনির কর্মকর্তারা আলাদাভাবে টেকনাফ ফায়ার সার্ভিসকে মোবাইল করলে তারা দ্রুত এসে আগুন নিয়ন্ত্রন করেন।

পরবর্তিতে সেনাবাহিনি আগুন কীভাবে দরল তা জানতে চাইলে উপস্থিত পাড়ার প্রতিবেশিরা জানায়, তারা আগুন দেখতে পেয়ে সেখানে আসলে দেখতে পাই শফিউল্লাহর ছেলে আরমান প্রকাশ (গুরাইয়া) এবং বখাটে রফিক প্রকাশ (কাট্টুইসসা) সেইখানে উপস্থিত এবং আরো জানান তারা দুইজন আমাদেরকে দেখতে পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।

আরমান এবং রফিকের সম্পর্কে জানতে চাইলে পাড়ার প্রতিবেসীরা জানিয়েছে, দুইজনে সমাজে নানা রকম আপকর্ম যেমন মাদক ও ইয়াবা ব্যবসা করে থাকে। ইয়াবা সেবন থেকে শুরু করে নানারকম কাজ করে।

স্থানীয়রা আরো জানান, তারা দুইজন ইয়াবার সাথেও জড়িত এবং তারা অনেক ইয়াবা ব্যবসায়ীদের কাছেও ইয়াবা বিক্রি করে থাকেন।

আবুল কালামের কাছে খড়ের স্তুপ জ্বালিয়ে দেওয়ার কারন জানতে চাইলে তিনি জানান, এলাকাই ইয়াবা বিষয়ে নানারকম আইনগত কঠোর ব্যবস্থার কারনে আরমান এবং রফিক আগের মত ইয়াবা বিক্রি করতে পারেনা। ফলে তারা মাদকদ্রব্য সেবন করার জন্য টাকা জোগাড় করতে পারেনা।

টাকা উপার্জন করতে না পেরে টাকা উপার্জনের জন্য সমাজে তারা নানারকম অপকর্ম করে। টাকার জন্য তারা কে বা কাদের প্রলোভনে পরে আমার বাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছে।
আবুল কালাম এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •