বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এর কাছ থেকে দোয়া নিয়েছেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের আসন্ন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী উপকুলীয় অঞ্চলের একমাত্র ও জনপ্রিয় প্রার্থী নূরে হাবিব তসলিম।

গত রবিবার বঙ্গভবনে মহামান্য রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের আসন্ন নির্বাচনে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী নূরে হাবিব তসলিম। তিনি ওইসময় চকরিয়া উপজেলার ১৮টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা এলাকার জনগনের খেতমতে আগামীতে নিবেদিতভাবে কাজ করার জন্য রাষ্ট্রপতির কাছে দোয়া চেয়েছেন। এ সময় বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির পাশে আরও উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ আতিউর রহমান আতিক, সুনামগঞ্জের সাংসদ মহিবুর রহমান মানিক, জয়া সেন গুপ্তা ও কিশোরগঞ্জের আফজাল হোসেন ও রেজওয়ান আহম্মেদ তৌফিক।

চকরিয়া উপজেলার উপকুলীয় জনপদের সাতটি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত প্রস্তাবিত মাতামুহুরী সাংগঠনিক উপজেলা। সাতটি ইউনিয়নের মধ্যে বদরখালী, পশ্চিমবড় ভেওলা, ঢেমুশিয়া, কোনাখালী, বিএমচর, পুর্ববড় ভেওলা ও সাহারবিল ইউনিয়নে বর্তমানে আড়াই লক্ষাধিক জনগনের বসবাস। ভোটার রয়েছে প্রায় লক্ষাধিক। বিশাল এই জনপদে দীর্ঘদিন ধরে নেতৃত্বশুন্য রয়েছে।

জনগনের দাবি ও আওয়ামীলীগের তৃনমুলের আশা আকাঙ্খার প্রতিফলন ঘটাতে এবার চকরিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়েছেন আওয়ামীলীগ নেতা নুরে হাবিব তছলিম। ইতোমধ্যে তিনি দলের মনোনয়ন চেয়ে আওয়ামীলীগের উপজেলা থেকে শুরু করে কক্সবাজার জেলা এবং দলের কেন্দ্রীয় শীর্ষ নেতৃবৃন্দের কাছে যোগাযোগ রক্ষা করে যাচ্ছেন।

বর্তমানে আঞ্চলিকতার ইস্যুতে মাতামুহুরী অঞ্চলের বিশাল ভোট ব্যাংক নিয়ে জয়ের হিসাব পাল্টে দিতে অন্যদের তুলনায় এগিয়ে আছেন উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী নুরে হাবিব তছলিম। চকরিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীতা ঘোষণা দিয়ে চমক সৃষ্টি করেছেন উপকূলীয় জনপ্রিয় আওয়ামীলীগ নেতা নুরে হাবিব তছলিম।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •