জাহাঙ্গীর আলম কাজল, নাইক্ষ্যংছড়ি:

বান্দরবানে নাইক্ষ্যংছড়িতে দিন দুপুরে অগ্নিকান্ডে একটি বসতঘর পুড়ে গেছে। শনিবার (২ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টায় উপজেলার সদর ইউনিয়নের চাকঢালা বড় ছড়া এলাকার মৃত মোস্তাক আহাম্মদের ছেলে আবুল খাইরের বাড়িতে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। অগ্নিকান্ডে কৃষক আবুল খাইরের প্রায় আড়াই লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবী করছেন স্থানীয়রা।

সদর ইউপি চেয়ারম্যান তসলিম ইকবাল চৌধুরী ও চাকঢালা এলাকার মওলানা সামশুল আলম জানান, শনিবার সকাল ৯ টার দিকে বিদ্যুতের শর্টসার্কিটে আগুনের সূত্রপাত হয়ে মুহুুর্তের মধ্যে আগুনের লেলিহান শিখায় বসতঘরটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। চারপাশের এলাকার লোকজন এসে অনেক চেষ্টা করেও কিছু রক্ষা করতে পারেনি। এতে দুইশ আড়ি ধান, নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার, আসবাবপত্র, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সহ প্রায় আড়াই লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। পরনের কাপড় ছাড়া কিছুই রক্ষা করা সম্ভব হয়নি। এ সংবাদ লেখা কাল পর্যস্ত ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার এখন খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছে। এলাকাবাসী অগ্নিকান্ড থেকে রক্ষা পেতে নাইক্ষ্যংছড়িতে দ্রুত ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপন করার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্থক্ষেপ কামনা করেন। খবর পেয়ে শনিবার সকাল সাড়ে ১১ টায় ছুটে যান জেলা পরিষদ সদস্য ক্যানওয়ান চাক, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাদিয়া অাফরিন কচি,সদর ইউপি চেয়ারম্যান তসলিম ইকবাল চৌধুরীসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। ইউএনও সাদিয়া আফরিন কচি সাংবাদিকদের জানান খবর পেয়ে তিনি অগ্নিকান্ডস্থল পরিদর্শন করেন। তৎখানিক ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে শুকনো খাবার,নগদ ৩ হাজার টাকা,এক বান্ডিল ঢেউটিন ও শীতকম্বল প্রদান করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •