cbn  

এম.জিয়াবুল হক, চকরিয়া:

চকরিয়ায় বসতঘরে ঢুকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে এক গৃহবধুকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার রাত আনুমানিক আড়াইটার দিকে উপজেলার সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নের ৬নম্বর ওয়ার্ডের পুর্ব সুরাজপুর গ্রামে ঘটেছে এ ঘটনা। এ ঘটনায় আক্রান্ত ওই গৃহবধু বাদি হয়ে মো.আরাফাত নামের এক বখাটেকে আসামি করে চকরিয়া থানায় একটি এজাহার দাখিল করেছেন।

চকরিয়া থানায় দায়ের করা এজাহারে পুর্ব সুরাজপুর গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের স্ত্রী বাদি (৩৫) দাবি করেন, দুইবছর ৬মাস পুর্বে তাঁর স্বামী মারা গেছেন। সেই থেকে তিনি বসতঘরে একা থাকেন। ঘটনার দিন মঙ্গলবার (২৯ জানুয়ারী) রাতে খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। তিনি ওইসময় ঘুরে বিভোর থাকলে রাত আনুমানিক আড়াইটার দিকে বসতঘরের দক্ষিনে মাটির দেয়াল টপকে ভেতরে ঢুকে একই এলাকার মনজুর আলমের ছেলে বখাটে মো.আরাফাত।

বাদি এজাহারে বলেন, বসতঘরে ঢুকে বখাটে আরাফাত তাকে মুখ চেপে ধরলে ঘুম ভেঙ্গে যায়। ওইসময় চিৎকার করার চেষ্ঠা করলে তাকে হাতে থাকা ধারালো ছোরার ভয় দেখায়। একপর্যায়ে মৃত্যুর ভয় দেখিয়ে লম্পট আরাফাত ইচ্ছায় বিরুদ্ধে তাকে জোরপুর্বক ধর্ষণ করে বলে বাদি এজাহারে দাবি করেছেন।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, বসতঘরে ঢুকে গৃহবধুকে ধর্ষণের অভিযোগে আক্রান্ত ওই নারী থানায় একটি এজাহার দিয়েছেন। তদন্ত সাপেক্ষে ঘটনায় অভিযুক্ত বখাটে আরাফাতকে গ্রেফতারে থানার একজন এসআইকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •