cbn  

শাহেদ মিজান, সিবিএন:
কক্সবাজারে শহর ছাত্রলীগের নেতা হাসান তারেককে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাত দেড়টার দিকে কক্সবাজার শহরের পানবাজার এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হাসান তারেককে চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হাসান তারেক শহরের নতুন বাহারছাড়ার বাসিন্দা।

ছাত্রলীগ নেতারা জানান, মঙ্গলবার রাতে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি নূরুল আজিম কনক। এই খবর পেয়ে তাকে কয়েকজন সহযোগী নিয়ে হাসপাতালে যান হাসান তারেক। সেখান ফেরার পথে সহযোগিদের নিয়ে শহরের পানবাজার এলাকার মতির চায়ের দোকানে চা খাচ্ছিল হাসান। সেখানে আগে থেকে অবস্থান করছিল সহযোগিসহ জিয়া উদ্দীন নামে এক যুবক।  সেখানে গ্লাসের পানি ছিটকে পড়াকে কেন্দ্র করে হাসান তারেক ও জিয়া উদ্দীনের মধ্যে সামান্য বিষয় নিয়ে বাক-বতন্ডা হয়। এতে এক পর্যায়ে জিয়া উদ্দীনের এক সহযোগী হাসান তারেককে ছুরিকাঘাত। একটি আঘাত তার বুকের কাছাকাছি লাগে। তাকে দ্রুত উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে রাতেই চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। তিনি এখনো শঙ্কামুক্ত নন।

হামলাকারী জিয়া উদ্দীনের বাড়ি মধ্যমবাহারছড়ায়। সে চিহ্নিত ইয়াবা ব্যবসায়ী। শহরের গাড়ির মাঠে তার নেতৃত্বে একটি সিন্ডিকেট ইয়াবা বিক্রি করে। তার বিরুদ্ধে ইয়াবার মামলাও রয়েছে।

কক্সবাজার শহর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হাসান মেহেদেী রহমান বলেন, ‘হাসান তারেক একজন ত্যাগী ছাত্রলীগ নেতা।  সন্ত্রাসী জিয়া উদ্দীনের সাথে  তার কোনো শত্রুতা নেই। কিন্তু যেভাবে হামলাটা করেছে তাতে মনে হয়ে কারো মদদপুষ্ট হয়ে পরিকল্পিতভাবে হাসান তারেককে ছুরিকাঘাত করেছে।’

কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফরিদ উদ্দীন বলেন, ‘ঘটনার সাথে সাথেই পুলিশ হামলাকীদের ধরতে অভিযান চালায়। তার বাড়িসহ বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়েও তাকে গ্রেফতার করা যায়নি। অভিযান অব্যাহত রয়েছে।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •