cbn  

শাহিদ মোস্তফা শাহিদ, সদর

ধর্মীয় অনুষ্ঠান ওয়াজ মাহফিলে গিয়ে সপ্তাহ ধরে নিখোঁজ রয়েছেন ঈদগাঁও বাসষ্টেশনের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী মোঃ আলমগীর কায়েস।

তার আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে খোঁজ খবর নিয়েও কোন ধরনের সন্ধান না পাওয়ায় সবার মাঝে অজানা আতংক বিরাজ করছে।

স্বামীর সন্ধান চেয়ে থানায় জিডিও করেছে স্ত্রী।

ঘটনার পর থেকেই ৪ টি মোবাইল বন্ধ থাকায় আত্মীয় স্বজন, পার্শ্ববর্তী দোকানদার,পরিচিতজনরা রয়েছে আতংকে। নিখোঁজ মোঃ আলমগীর কায়েস পার্শ্ববর্তী চকরিয়া উপজেলার চিরিঙ্গা পান খালী এলাকার মোঃ ইছহাকের ছেলে।

দীর্ঘদিন ধরে পরিবার থেকে আলাদা হয়ে ঈদগাঁও বাসষ্ট্যাণ্ডস্থ একটি কলোনিতে স্ত্রী নিয়ে বসাবাস ও আরকান সড়কের পাশে আরফাত শপিং কমপ্লেক্সের সামনে ছোট একটি ইজিলোড এবং বিকাশের ব্যবসা করে আসছিল।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার ডায়েরী সূত্রে জানা যায়, মোঃ আলমগীর গত ২৩ জানুয়ারী রাত আনুমানিক সাড়ে ৮ টার বাসা থেকে ধর্মীয় মাহফিলে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বের হয়।যথাসময়ে বাসায় ফিরে না আসায় তার ব্যবহৃত মোবাইলে কল করলে বন্ধ পাওয়া যায়। পরদিনও বাসায় না আসায় আত্মীয় স্বজনদের সাথে যোগাযোগ এবং সম্ভাব্য বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও না পাওয়ায় ২৭ জানুয়ারী স্ত্রী বাদী হয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় একটি নিখোঁজ ডায়েরি করেন ( যার নং ১৮৬১)।নিখোঁজের সময় আলমগীরের পরনে সাদা গোলাপী হাত লম্বা শার্ট তার উপর শীতের কালো জ্যাকেট,জলপাই রং এর একটি গ্যাবাডিং প্যান্ট ছিল।তার গায়ের রং শ্যামলা, উচ্চতা ৫ ফুট ৬ ইঞ্চি মত এবং শরীরের গঠন মধ্যম বলেও ডাইরীতে উল্লেখ করেন।তার খোঁজ ও সন্ধান পেয়ে থাকলে ০১৮৪০-০০২৮০৪ নাম্বারে জানানোর অনুরোধ করেন আলমগীরের স্ত্রী।

এদিকে সদালাপী,ধার্মীক সকলের পরিচিত মুখ আলমগীর নিখোঁজের পর ঈদগাঁও বাসষ্ট্যাণ্ড এবং বাজারের ব্যবসায়ী ও সর্বশ্রেণীর মানুষের মাঝে অজানা আতংক বিরাজ করছে বলে জানান একাধিক ব্যবসায়ী।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •