বার্তা পরিবেশক:

চকরিয়া-পেকুয়া (কক্সবাজার-১) আসনের নবনির্বাচিত এমপি ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম বলেছেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার সফল নেতৃত্বে আওয়ামীলীগ যতবার দেশের রাষ্ট্র ক্ষমতায় এসেছে ততবার জনগনের ভাগ্য উন্নয়নে ও দেশের অগ্রগতিতে নিরলশভাবে করেছে। বঙ্গবন্ধু কন্যার সুদক্ষ ও যোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নতশীল দেশের কাতারে পৌঁেছ অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। বাংলাদেশ সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের উন্নয়ন অগ্রগতির পাশাপাশি জনগনের মুখে হাসি ফুটাতে সব ধরণের প্রনোদনা দিচ্ছেন। তাঁর সরকারের আমলে কৃষকরা পাচ্ছে বিনামুল্যে সার বীজ, কৃষি উপকরণ। প্রতিবন্ধি ও অসহায় এবং বয়স্ক শ্রেণীর নারী-পুরুষরা পাচ্ছেন সরকারিভাবে সকল ধরণের ভাতা। বাদ যাচ্ছেনা গর্ভবর্তী মায়েরা। তাঁরাও সরকারিভাবে চিকিৎসা ভাতা পাচ্ছেন। শিক্ষার্থীরা পাচ্ছেন বিনামুল্যে লেখাপড়ার সুযোগ। উপবৃত্তির মাধ্যমে শিক্ষার্থীদেরকে সহায়তা দিচ্ছে সরকার। বছরের প্রথমদিন দেশব্যাপী একসঙ্গে শিক্ষার্থীদের নতুন পাঠ্যবই দিচ্ছেন শেখ হাসিনার সফল সরকার।

চকরিয়া উপজেলার কোনাখালী ইউনিয়নে মঙ্গলবার দুপুরে স্থানীয় দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হেদায়েতুল উলুম মাদরাসার দাখিল পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও বার্ষিক ক্রীড়া সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ এবং এমপি আলহাজ জাফর আলমকে দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেছেন।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এমপি জাফর আলম আরও বলেন, জনগনের ভোটে আওয়ামীলীগ আবারও রাষ্ট্র ক্ষমতায় এসেছে। ইতোমধ্যে সরকার প্রধান ঘোষনা দিয়েছেন, সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে তিনি দলমত নির্বিশেষে সবার ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করবেন। সেই আলো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রূপগল্প বাস্তবায়নে চকরিয়া-পেকুয়ার প্রতিটি ঘরে ঘরে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে হবে। এইজন্য শিক্ষক সমাজকে বলিষ্ট ও দক্ষ ভুমিকা পালন করতে হবে। মনে রাখতে হবে আমি নতুন প্রজন্মের জন্য সুন্দর আগামী গড়তে চাই। সেইজন্য আগামী পাঁচবছরের মধ্যে চকরিয়া-পেকুয়া উপজেলার সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে মেধাধী মানবসম্পদ উপহার দিতে হবে। শিক্ষার্থীদেরকে লেখাপড়ার মাধ্যমে সেইভাবে গড়ে তুলতে হবে।

মাদরাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি মাওলানা নুর আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও চকরিয়া বর্ণমালা একাডেমী স্কুলের চেয়ারম্যান আমিনুর রশিদ দুলাল, কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ও চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহেদুল ইসলাম লিটু, কোনাখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান দিদারুল হক সিকদার, বিএমচর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ বদিউল আলম, যমুনা লাইফ ইন্সুরেন্স কোম্পানীর কর্মকর্তা এম মনছুর আলম, চকরিয়া সিটি কলেজের শিক্ষক আওয়ামীলীগ নেতা অধ্যাপক মনজুর আলম, কোনাখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম, বিএমচর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম খোকন, মাদরাসার শিক্ষক কমরউদ্দিন আহমদ, মৌলভী ফরিদ উদ্দিন।

মাদরাসার সুপার শফিকুল্লাহ ফারুকীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন পরিচালনা কমিটির সদস্য আকতার হোছাইন, আজিজুর রহমান, ফরিদুল আলম, নুরুল আবছার, খোরশেদা বেগম, মাদরাসার শিক্ষক তছলিমা বেগম, এরশাদ উল্লাহ, মাস্টার নুরুল কাদের, সমাজ সেবক বাহাদুর আলম বাদশা, ইফতেকার উদ্দিন বকুল, কোনাখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি যুবলীগ নেতা ইকবাল বাহার, আওয়ামীলীগ নেতা গিয়াস উদ্দিন, আবদুল খালেক, মোহাম্মদ লায়েক, মোক্তার আহমদ, সাইফুল আলম, মাস্টার শহিদুল আলম, মাস্টার জসিম উদ্দিন, হেলাল উদ্দিন, শাহাব উদ্দিন, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহবায়ক মোহাম্মদ মিরাজ, যুগ্ম আহবায়ক মীর মোশারফ হোছাইন ও মোহাম্মদ তারেক। এছাড়াও অনুষ্ঠানে মাদরাসার সকল শিক্ষক, পরিচালনা কমিটির সকল সদস্য, অভিভাবক, শিক্ষার্থী ও সুধীজন এবং আওয়ামীলীগ সহযোগি সংগঠনের সভাপতি সম্পাদক উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের আলোচনা শেষে প্রধান অতিথি এমপি আলহাজ জাফর আলম বিদায়ী শিক্ষার্থী ও প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •