বিশেষ প্রতিবেদক:
টেকনাফ উপজেলায় আলাদা অভিযান চালিয়ে দেড় লাখ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যরা। তবে এ সময় কাউকে আটক করতে পারেনি তারা।

শুক্রবার সকালে খুদেবার্তায় এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ-২ বিজিবির ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর শরীফুল ইসলাম জোমাদ্দার। তিনি জানান, ‘মিয়ানমার থেকে এনে ইয়াবার একটি বড় চালান মজুত রাখার গোপন সংবাদ পাওয়া যায়। এই খবর পেয়ে বিজিবির একটি বিশেষ দল টেকনাফ পৌরসভার উত্তর জালিয়াপাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় একটি পরিত্যক্ত ঘরে তল্লাশি চালিয়ে মাটি খুঁড়ে একটি ড্রাম উদ্ধার করা হয়। পরে এই ড্রামের ভেতরে ১ লাখ ৩০ হাজার পিস ইয়াবা বড়ি পাওয়া যায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘একই দিন সাবরাং ইউনিয়নের ১নং স্লুইসগেট সংলগ্ন আলমের লবণ প্রজেক্ট এলাকা দিয়ে পাচারকারীরা ইয়াবার চালান নিয়ে টেকনাফে ঢুকছে, এমন খবরে নাজিরপাড়া চৌকির হাবিলদার মোহাম্মদ আশরাফুল আলমের নেতৃত্বে বিজিবির একটি দল ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় একটি বস্তা ফেলে নাফ নদে ঝাঁপ দিয়ে পাচারকারীরা পালিয়ে যায়। পরে ফেলে যাওয়া বস্তা থেকে ২০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। এসব ইয়াবা ব্যাটালিয়ন সদরে জমা করা হয়েছে। পরে এগুলো ধ্বংস করা হবে।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •