রামু সংবাদদাতা:
রামু উপজেলার কাউয়ারখোপে পাওয়া টাকা চাইতে গিয়ে ছুরিকাঘাতে আহত ইউনিয়নের লড উখিয়ার ঘোনার এলাকার খেনছর ঘোনা গ্রামের মৃত আলী আহম্মদের ছেলে আওয়ামী লীগ নেতা জহিরুল ইসলাম বাহাদুর (৩২) মারা গেছেন। ছয়দিন পর ২৪ জানুয়ারি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হ।

এলাকাবাসী জানান, ১৯ জানুয়ারি  নিহত জহিরুল ইসলাম বাহাদুর খেনছর ঘোনা আবদু রহিমের মার্কেটের সামন ঘাতক জুবাইর থেকে পাওনা টাকা চাইলে গেলে বাকবিতন্ডা হয়। কিছুক্ষন পর ঘাতক জুবাইর ও তার পিতা লোকমান হাকিম, মা ছুপিয়া খাতুন সহ আর ৩/৪ লোক এসে হঠাৎ করে বাহাদুর কে মারধর করে এবং তল পেটে ছুরিকাঘাত করে।  এলাকাবাসী ঘটনা স্থল থেকে বাহাদুরকে উদ্ধার করে প্রথমে রামু হাসপাতালে নিয়ে যায়। অবস্থার অবনতি হলে কক্সবাজার সদর হাসপাতাল এবং পরে চট্টগ্রাম মেডিকেলে স্থানান্তর কর করাহ হয়। ছয়দিন  ২৪শে জানুয়ারী বিকাল ৫ টার সময় চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে মৃত্যু বরন করেন জহিরুল ইসলাম। রাত আটার সময় স্থানীয় মসজিদে জানাযা হয়।

জানায়া বক্তব্য রাখেন- রামু উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সোহেল সরোওয়ার কাজল, কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোস্তাক আহাম্মদ, সাবেক চেয়ারম্যান মুক্তিযুদ্ধা নুরুল হক নুর হোছন মেম্বার ।এ সময় বক্তারা ঘাতক দের কে আটক করে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের দাবি জানান। বাহাদুর ৭ নং ওয়ার্ডের কৃষি বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্বে ছিলেন। রামু থানার এস আই কিশোর ঘটনা স্থল পরিদর্শন করে জানান আসামীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •