সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
মহেশখালীতে উপজেলা পর্যায়ে আন্তঃপ্রাথমিক বিদ্যালয় ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ২৩ জানুয়ারী দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলার ৭০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে।
সকাল ১০ টায় মহেশখালী কলেজ মাঠে ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও মহেশখালী মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা শুরু হয়।
১ম ও ২য় শ্রেণী ‘ক’ গ্রুপ এবং ৩য় থেকে ৫ম শ্রেণী ‘খ’ গ্রুপে শিক্ষার্থীরা ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় ‘ক’ গ্রুপের মধ্যে রয়েছে, ৫০ মিটার দৌড়, ২৫ মিটার চকলেট দৌড়, দীর্ঘ লাফ, ক্রিকেট বল নিক্ষেপ, গুপ্তধন উদ্ধার, যেমন খুশি তেমন সাজ। ‘খ’ গ্রুপে রয়েছে ১০০ মিটার দৌড়, দীর্ঘলাফ, উচ্চ লাফ, ভারসাম্য দৌড়, মোরগ লড়াই, ক্রিকেট বল নিক্ষেপ, অংক দৌড়। সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় মধ্যে ‘ক’ গ্রপে রয়েছে ছড়া আবৃত্তি, চিত্রাংকন, নৃত্য, সুন্দর হাতের লেখা (বাংলা) এবং ‘খ’ গ্রপে রয়েছে, কবিতা আবৃত্তি, চিত্রাংকন, নৃত্য, পল্লীগীতি/লোকগীতি, দেশাত্ববোধক গান, একক অভিনয়, উপস্থিত বক্তৃতা ও শ্রেষ্ঠ কাব শিশু।
সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা পরিচালনা করেন মাখন লাল দে (আহবায়ক), প্রধান শিক্ষক, গোরকঘাটা সরকারি প্রাঃ বিঃ, অরুন কান্তি দে (প্রধান শিক্ষক), এডভোকেট মওদুদ আহমদ সরকারি প্রাঃ বিঃ, মুহাম্মদ রবিউল হোছাইন (প্রধান শিক্ষক), কায়দাবাদ সরকারি প্রাঃ বিঃ, মুহাম্মদ ছরওয়ার আলম (প্রধান শিক্ষক), মিঠাকাঠা সরকারি প্রাঃ বিঃ, তৌহিদা আক্তার (সহকারি শিক্ষক), মডেল সরকারি প্রাঃ বিঃ, মিন্টু দাশ (অফিস সহায়ক), বার্মিজ সরকারি প্রাঃ বিঃ।
ক্রীড়া প্রতিযোগিতা পরিচালনা করেন আনচার উল্লাহ হেলালী (আহবায়ক) সহকারী শিক্ষক, ছোট মহেশখালী সরকারি প্রাঃ বিঃ, জসিম উদ্দিন (সহকারি শিক্ষক) এডভোকেট মওদুদ আহমদ সরকারি প্রাঃ বিঃ, প্রিয়ংকা পাল (সহকারি শিক্ষক) মধুয়ারডেইল সরকারি প্রাঃ বিঃ, রমিজ আহমদ (সহকারি শিক্ষক), সিপাহীরপাড়া সরকারি প্রাঃ বিঃ, শাহাব উদ্দিন সাইফু (অফিস সহায়ক) মডেল সরকারি প্রাঃ বিঃ, সুজন দে অফিস সহায়ক), আদিনাথ সরকারি প্রাঃ বিঃ।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মহেশখালী উপজেলা শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) আবু আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ নোমান, সহকারী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ।
আরো অন্যান্য বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সরকারি শিক্ষক, শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য যে, উপজেলা পর্যায়ে প্রথম স্থান অধিকারকারী শিক্ষার্থীরা জেলা পর্যায়ে অংশগ্রহণ করবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •