cbn  

বিশেষ প্রতিবেদক :

কক্সবাজারে এডিশনাল এসপি ইকবাল হোসেন বলেছেন, রোহিঙ্গা এনজিওতে স্থানিয় যুবকদের অগ্রাধিকার দিতে হবে। চাকরির দাবিতে স্থানিয়রা যেই আন্দোলন করছে সেই দাবির প্রতি পূর্ন সমর্থন আছে বলে জানান এই চৌকশ পুলিশ কর্মকর্তা। এনজিওতে স্থানিয়দের চাকরির জন্য জেলা প্রশাসনের একটি সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহনের পরামর্শ দেন কক্সবাজারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইকবাল হোসেন। একই সাথে আন্দোলনকারীদের সুশৃঙ্খল ও শান্তিপূর্ন পরিবেশ বজায় রাখার পরামর্শ দেন তিনি। রোহিঙ্গা ক্যাম্পে চাকরির দাবিতে আন্দোলনকারীরা ধারাবাহিক কর্মসূচী হিসেবে স্মারকলিপি দিতে গেলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এসব কথা বলেন।

রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এনজিওর চাকরিতে স্থানিয়দের অধিকার আদায়ের জন্য ১৪ দফা দাবি নিয়ে আজ মঙ্গলবার কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক, রোহিঙ্গা ত্রান ও প্রত্যাবাসন কমিশনার, কক্সবাজারের পুলিশ সুপার, ইন্টার সেক্টর কোর্ডিনেশন গ্রুপ ও বিভিন্ন এনজিও সংস্থার কাছে স্মারকলিপি দেয় আন্দোলনকারীরা।

এই সময় উপস্থিত ছিলেন অধিকার বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক শরিফ আজাদ, আমরা কক্সবাজারবাসি সংগঠনের সমন্বয়ক নাজিম উদ্দিন, সাংকৃতিক কর্মী কলিমউল্লাহ, যুবনেতা ইমরুল কায়েস চৌধুরী, শ্রমিক নেতা এইচ এম নজরুল, পরিকল্পিত কক্সবাজার আন্দোলনের সমন্বয়ক আব্দুল আলিম নোবেল, অধিকার বাস্তবায়ন কমিটির নেতা মন্জুর আএম, যুবনেতা সাজেদুল ইসলাম লিটন, তৌসিফ চৌধুরী সহ চাকুরিচ্যুত ও চাকরি বঞ্চিতরা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •