বার্তা পরিবেশক :

অধ্যাপিকা এথিন রাখাইনকে সাংসদ হিসেবে দেখতে চায় কক্সবাজার জেলাবাসী। একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনে আ’লীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী রাজপথের এ নেত্রী। তিনি বাংলাদেশ আ’লীগ কক্সবাজার জেলা শাখার বর্তমান কমিটিতে সিনিয়র সহ-সভাপতি হিসেবে আসীন। পরিচ্ছন্ন ও ত্যাগী নেত্রী অধ্যাপিকা এথিন রাখাইন। একাদশ জাতীয় সংসদে তিনি সর্বাধিক গ্রহনযোগ্য সৎ, ত্যাগী ও পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ। তিনি ক্ষমতাসীন দল থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী। জেলা বাসীর সর্বোচ্চ দাবী রাজপথের মুজিবাদর্শের লড়াকু সৈনিক ও জেলার রাজনৈতিক অঙ্গনের নিবেদিত প্রাণ অধ্যাপিকা এথিন রাখাইনকে জাতীয় সংসদে মনোনয়ন দেয়া হউক। সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা জননেত্রী শেখ হাসিনা
জেলাবাসীর সর্বোচ্চ দাবীতে সৎ গ্রহনযোগ্য, সর্বশ্রেনী ও সব ধর্মের পক্ষ থেকে এ নেত্রীকে সংরক্ষিত আসনে মনোনয়ন দেয়া হউক। এ দিকে অধ্যাপিকা এথিন রাখাইনকে জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনে প্রার্থী হিসেবে দেখতে চায়। এর স্বপক্ষে বৌদ্ধ, খ্রিস্টান, সনাতন ধর্মালম্বীসহ সর্বস্তরের জেলাবাসীর পক্ষ থেকে দাবী উঠছে। ক্ষুদ্র নৃতাত্তিক জাতি গোস্টীর তরফ থেকে জানানো হয়েছে আমরা সংরক্ষিত মহিলা আসন থেকে আমাদের প্রাণের নেত্রী পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ ও ত্যাগী সংগঠক অধ্যাপিকা এথিন রাখাইনকে এমপি প্রার্থী হিসেবে দেখতে চায়। তিনি রাজনৈতিক অঙ্গনে একজন নির্লোভ ও সাদা মানুষ। জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালীকরন একটি সুখী ও সমৃদ্ধির বাংলাদেশ বিনির্মাণে তিনি যোগ্য। আওয়ামী রাজনীতির জন্য অনেক ত্যাগ ও তিতীক্ষা তার মাঝে প্রমাণ পেয়েছি। আওয়ামী রাজনীতির দু:সময়ে দলটির সব কার্যক্রমে এ নেত্রীর সাহসিক ভূমিকা সর্বজন প্রশংসিত। তিনি জননেত্রী শেখ হাসিনার মুক্তির আন্দোলনে রাজপথের অগ্র ও সাহাসীক সৈনিক হিসেবে কাজ করেছেন। আওয়ামী রাজনীতির অত্যন্ত পরিশ্রমী ও ত্যাগী নেত্রী তাকে মুল্যায়ন করবেন এ প্রত্যাশা আমরা করছি। দারিদ্র বিমোচন ও উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করতে মেধা ও সৃজনশীল রাজনৈতিক প্রজ্ঞার অধিকারী এ নেত্রী। সম্প্রতি অনুষ্টিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জননেত্রী শেখ হাসিনার মনোনীত প্রার্থীদের জেতাতে তিনি নির্বাচনী মাঠে কঠোর পরিশ্রম করেন। জেলার ৪ টি সংসদীয় আসনে অধ্যাপিকা এথিন রাখাইন নৌকা মার্কার প্রার্থীদের জেতাতে নির্বাচনী মাঠে প্রচার প্রচারনা ও গণসংযোগে মিলিত হয়েছেন। এ সময় ক্ষুদ্র নৃগোষ্টীসহ সকল ধর্মের অনুসারীকে নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার পক্ষে উদ্ভুদ্ধ করেছেন। তার এ প্রচারনায় জেলার বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের ভোট ব্যাংক নৌকার পক্ষে ধাবিত হয়। অধ্যাপিকা এথিন রাখাইন অত্যন্ত সৎ ও সাদা জীবন যাপনে বিশ্বাসী। তিনি মনে করেন রাস্ট্রের মালিক জনগন। জনগনের কল্যাণ ও উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করা হচ্ছে জনপ্রতিনিধিদের কাজ। নারীর ক্ষমতায়ন মানুষের মৌলিক অধিকার সমুহ বাস্তবায়ন করা সংসদ সদস্যদের প্রধান কর্তব্য। দুর্ণীতিমুক্ত আধুনিক সমাজ ব্যবস্থাকে এগিয়ে নেয়া হচ্ছে তার স্বপ্ন। তিনি জেলাবাসীর প্রাণের দাবী সমুহ বাস্তবায়নে আন্তরিক। একাদশ জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত আসনে গণতন্ত্র ও সাম্যের এ নেত্রীকে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে দেখতে চায়। নৃগোষ্টীসহ সকল ধর্ম-বর্ণ ও কক্সবাজার জেলাবাসীর জোরালো দাবী অধ্যাপিকা এথিন রাখাইনকে একাদশ জাতীয় সংসদে মহিলা আসনে আ’লীগের প্রার্থী করা হউক। বৌদ্ধ সম্প্রদায়সহ সর্বস্তরের কক্সবাজার জেলাবাসীর পক্ষ থেকে অধ্যাপিকা এথিন রাখাইনকে মনোনয়ন দেয়ার আহবান করছি। গণতন্ত্র ও আধুনিক বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে আহবান করছি তাকে সাংসদ হিসেবে পেতে চায়।
জেলাবাসীর পক্ষে আলহারী রাখাইন সহসভাপতি বৌদ্ধ সুরক্ষা পরিষদ, কক্সবাজার জেলা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •