ইমাম খাইর, সিবিএনঃ

রামু উপজেলার গর্জনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সৈয়দ নজরুল ইসলামকে না পেয়ে তার ব্যক্তিগত সহকারি নুরুল হাকিমের (৫৩) হাতের চারটি আঙ্গুলের অংশ কেটে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা।
শুক্রবার ভোররাত সাড়ে তিনটার দিকে গর্জনিয়া বাঁকখালী ব্রীজ সংলগ্ন পাহারা ঘরে এই ঘটনাটি ঘটে।
আহত নুরুল হাকিম গর্জনিয়ার ২ নং ওয়ার্ডের জুমছরি এলাকার মৃত খলিলুর রহমানের ছেলে।
তাকে গুরুতর অবস্থায় প্রথমে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখান থেকে কক্সবাজার জেলার সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। তাৎক্ষণিক ঘটনায় জড়িত কাউকে চিহ্নিত করা যায়নি এবং কেউ আটক হয়নি।
চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলামের ছোট ভাই মোহাম্মদ নবী মুঠোফোনে সিবিএনকে জানান, বাঁকখালীর করাল গ্রাস থেকে এলাকাকে রক্ষার জন্যে নদীর তীরে পাহারা ঘর বেঁধেছিলেন চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম। ওই ঘরে মাঝেমধ্যে চেয়ারম্যান নিজেই রাতযাপন করেন। সাথে ব্যক্তিগত সহকারি নুরুল হাকিমও থাকেন।
তিনি জানান, পাহারা ঘরে সন্ত্রাসীরা চেয়ারম্যানকে খোঁজে না পেয়ে তার সহকারীকে কুপিয়ে হাতের চারটি আঙ্গুলের অগ্রভাগ বিচ্ছিন্ন করে ফেলেছে। রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে হাসপাতাল ভর্তি করা হয়েছে।
এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সৈয়দ নজরুল ইসলাম হাসপাতলে ছুটে যান। গুরুতর আহত তার সহকারি নুরুল হাকিমের শারীরিক খোঁজ খবর নেন। নির্মম ঘটনাটির জন্য তীব্র নিন্দা ও দুঃখ প্রকাশ করেন।
এ ঘটনায় কারা জড়িত তা অতিশীগ্রই তদন্তপূর্বক বের করে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান চেয়ারম্যান নজরুল।
এই ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে রামু থানার ওসি মুহাম্মদ আবুল মনসুর তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেবেন বলে জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •