ফারুক আহমদ, উখিয়া:

উখিয়া থানার পুলিশ অভিযান চালিয়ে বালুখালী এলাকা হতে একাধিক দেশীয় অস্ত্র জব্দ করেছে। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ইয়াবা সিন্ডিকেটের সদস্যরা পালিয়ে যায়। বুধবার (১৬ জানুয়ারী) এসআই ফারুক হোসনের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়।

জানা যায়, পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান নুরুল আবছার চৌধুরীর মালিকানাধীন বালুখালী পানবাজারে অবস্থিত আলিফ ট্রেডিংয়ের একদল সন্ত্রাসী হানা দেয়। গত মঙ্গলবার পশ্চিম বালুখালী গ্রামের আলী আহমদের পুত্র ও বহি:স্কৃত পুলিশ বাহিনীর সদস্য আলা-উদ্দিনের নেতৃত্বে একদল ইয়াবা কারবারী দোকানের ম্যানেজার শাহজাহান ও হেলালকে মারধর করে প্রায় ৪ লক্ষ টাকা লুটপাট করে নিয়ে যায়। এসময় সন্ত্রাসীরা দোকানও ভাংচুর করে।

প্রত্যেক্ষদর্শীরা জানান, বুধবার ওই ঘটনার জের ধরে পুন:রায় হামলার জন্য সন্ত্রাসী বাহিনী জড়ো হলে মেম্বার নুরুল আবছার চৌধুরী বিষয়টি উখিয়া থানার পুলিশকে অবহিত করে। পুলিশ খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে আসলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। এসময় পুলিশ অভিযান চালিয়ে রাম দা, হকি স্টিক, লোহার রড, মাত্তুলসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করে।

খোঁজখবর নিয়ে জানা গেছে, আলা উদ্দিন পুলিশের চাকুরী করাকালীন গত বছর বিপুল পরিমান ইয়াবা সহ চট্টগ্রামের একটি থানায় আটক হয়। পরে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ ইয়াবা পাচারে জড়িত থাকার অভিযোগে তাকে পুলিশ বিভাগ থেকে বহিঃস্কার করে।

প্যানেল চেয়ারম্যান নুরুল আবছার চৌধুরী অভিযোগ করে বলেন, ইয়াবা সিন্ডিকেটের সদস্য ও পুলিশ বিভাগ থেকে বহি:স্কৃত আলা উদ্দিন জেল থেকে বের হয়ে এলাকায় বাহিনী গঠন করে নানা অপরাধে জড়িত হয়। ইয়াবা থেকে শুরু করে মাদক ব্যবসা নিয়ন্ত্রণে নেতৃত্ব দেন তিনি। তিনি আরো বলেন, চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় তার নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী আমার দোকানে ভাংচুর চালিয়ে মারধর পূর্বক টাকা লুটপাট করে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে আলা উদ্দিনকে প্রধান আসামী করে তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুত চলছে বলে জানা গেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •