নবনির্বাচিত এমপি জাফর আলমকে ফুলেল সংবর্ধনা দিচ্ছেন পেকুয়ার ইউএনও এবং থানার ওসি।

বার্তা পরিবেশক :

পেকুয়া উপজেলার মগনামা ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে নবনির্বাচিত সাংসদ জাফর আলমকে সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। সোমবার (১৪জানুয়ারী) দুপুরে ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে এ সংবর্ধনা দেয়া হয়। মগনামা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শরাফত উলাহ ওয়াসিমের সভাপতিত্বে ও ইউপি সদস্য শাহেদুল ইসলামের পরিচালনায় সংবর্ধনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের নবনির্বাচিত সাংসদ আলহাজ জাফর আলম। সাংসদ আলহাজ জাফর আলমকে গতকাল পেকুয়ায় অন্তত চারটি অনুষ্ঠানে সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। দলের নেতাকর্মীদের পাশাপাশি সর্বস্তরের জনগন তাকে ফুলের মালা দিয়ে বরণ করে নেন।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য আবু হেনা মোস্তাফা কামাল, পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহবুবউল করিম, পেকুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ জাকির হোসেন ভূঁইয়া, ওসি তদন্ত মিজানুর রহমান, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য এসএম গিয়াস উদ্দিন, জিএম আবুল কাশেম, পেকুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শাহনেওয়াজ চৌধুরী বিটু মিয়া, সাধারণ সম্পাদক আবুল কাসেম, পেকুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম, পেকুয়া উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ বারেক, টইটং ইউপি চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী, রাজাখালী ইউপি চেয়ারম্যান ছৈয়দ নূর, মগনামা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান খাইরুল এনাম, সাধারণ সম্পাদক রশিদ আহমদ, পেকুয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কফিল উদ্দিন বাহাদুর, আ’লীগ নেতা মেহের আলী ও মোস্তাক আহমদ প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে নবনির্বাচিত সাংসদ আলহাজ জাফর আলম বলেন, চকরিয়া-পেকুয়া উপজেলার প্রতিটি জনপদে এখন থেকে কোন ধরণের সংঘাত হবেনা, আজ থেকে সবার মধ্যে হবে কোলাকুলি। এলাকার উন্নয়ন যেমন হবে, তেমনি দলমত নির্বিশেষে সবার মধ্যে গড়ে উঠবে সম্প্রীতির মেলবন্ধন। অতীতে পেকুয়া তথা মগনামায় নানা কারনে অশান্ত পরিবেশ বিরাজ করলেও এখন থেকে শান্তির পরিবেশ বজায় রাখতে হবে। নির্বাচনী এলাকার জনগনের জানমালের নিরাপত্তা আপনার আমার দায়িত্ব।

তিনি বলেন, চকরিয়া-পেকুয়া উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে সমান বন্টরে উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়ন করা হবে। এলাকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মান্নোয়নে সম্ভব সবধরণের সহযোগিতা দেয়া হবে। দুই উপজেলার উপকুলীয় অঞ্চলে লবণ ও মাছ পরিবহনের জন্য সমস্ত রাস্তা আরসি.স করা হবে। প্রতিটি গ্রামীণ সড়কের সংস্কার করা হবে। লবণ সংরক্ষনের জন্য স্থাপন করা হবে পরিশোধনাগার।

এখন থেকে চকরিয়া-পেকুয়া উপজেলায় লবণের নায্যমূল্য নিশ্চিত করা হবে। এখানে কোন ধরণের শৈতিল্য করা হলে তাঁর জন্য সংশ্লিষ্টদের জবাব দিতে হবে। ব্যবসা ও লবণ উৎপাদনের ক্ষেত্রে আপনারা যাতে সকল সুযোগ সুবিধাভোগ করতে পারেন সেই ব্যবস্থা করা হবে। এক্ষেত্রে আপনাদের মনে রাখতে হবে দলীয় নেতাকর্মীদের হাতে যাতে সাধারণ জনগণ কষ্ট না পায়।

সংবর্ধনার আগে নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য আলহাজ জাফর আলম এদিন সকালে পেকুয়া উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে প্রশাসনের সকল দপ্তরের কর্মকর্তাদের সাথে মত বিনিময় সভায় মিলিত হন। পরে তিনি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। এরআগে সংসদ সদস্য আলহাজ জাফর আলম উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে পৌছাঁলে পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহবুবউল করিম, পেকুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ জাকির হোসেন ভূঁইয়াসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা তাকে ফুলেল তোড়া দিয়ে বরণ করে নেন। এরপর সভা শেষে তিনি পেকুয়া উপজেলা (এলজিইডি) বাস্তবায়নে পেকুয়া ইউনিয়ন পরিষদ হতে পেকুয়া উপজেলা সড়ক ১ কোটি ৪৩ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ৩৭ চেইন আর.সি.সি. দ্বারা উন্নয়ন কাজ উদ্বোধন করেন।

এদিন সন্ধ্যায় তিনি পেকুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের কর্তৃক আয়োজিত বিশেষ বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। পেকুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাহনেওয়াজ চৌধুরী বিটুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেমের সঞ্চালনায় এ সভায় বক্তব্য দেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা কামাল হোসেন, সদস্য আবু হেনা মোস্তাফা কামাল, গিয়াস উদ্দিন, জিএম কাশেম, উম্মে কুলছুম মিনু, পেকুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম, উজানটিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম, টইটং ইউপি চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম, রাজাখালী ইউপি চেয়ারম্যান ছৈয়দ নূর, সাবেক চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম বাবুল।

বক্তব্য রাখেন পেকুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি বশির আলম, মোস্তাক আহমদ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক কাজীউল ইনসান, দপ্তর সম্পাদক খানে আলম, পেকুয়া সদর আওয়ামীলীগের সভাপতি আজম খান, সম্পাদক বেলাল উদ্দিন বিএসসি, বারবাকিয়া সভাপতি আবুল হোছাইন শামা, সম্পাদক কামাল হোসেন, শীলখালী সভাপতি ওয়াহিদুর রহমান ওয়ারেসি, সম্পাদক বেলাল উদ্দিন আহমদ, উজানটিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি তোফাজ্জল করিম, সাধারণ সম্পাদক শাহ জামাল, রাজাখালী সভাপতি নুরুল ইসলাম বিএসসি, সম্পাদক আবুল কাসেম আজাদ, টৈইটং সভাপতি ছরওয়ার কামাল চৌধুরী, পেকুয়া উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি জিয়াবুল করিম জিকু, পেকুয়া উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি মেম্বার ওসমান গনি, সাধারণ সম্পাদক মাস্টার নেজাম উদ্দিন, পেকুয়া উপজেলা সৈনিকলীগ সভাপতি সাংবাদিক শহিদুল ইসলাম হিরু, উপজেলা যুবলীগ যুগ্ম সম্পাদক সাংবাদিক নাজিম উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক সাংবাদিক মুহাম্মদ হাসেম, প্রচার সম্পাদক সাংবাদিক শাখাওয়াত হোসেন সুজন, যুবলীগ নেতা এড. ওসমান, এনামুল হক, মৎস্যজীবিলীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম মেম্বার, সাবেক ছাত্রনেতা মো: ইকবাল ও সাবেক ছাত্রনেতা আবদুল বারেক টিপু প্রমুখ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •