আবুল কাশেম,কুতুবদিয়া :

কুতুবদিযা উপজেলার কৈয়ারবিল ইউনিয়নে বাংলাদেশে গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ (২য় পর্যায়) প্রকল্পের উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৮ জানুয়ারী মঙ্গলবার ১১টায় ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্নে এ উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। উঠান বৈঠক অনুষ্ঠানে কৈয়ারবিল ইউনিয়ন গ্রাম আদালত সহকারী আবুল কাশেম’র সঞ্চালনায় এবং ইউপি সদস্য কবির আহমদ বাদশার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কৈয়ারবিল ইউপি’র প্যানেল চেয়ারম্যান কপিল উদ্দিন। তিনি বলেন, নিজ ইউনিয়নেই গ্রাম আদালত দূরে কেন আর, বিরোধ হলে হাতের কাছেই পাবেন সুবিচার”। স্থানীয় সরকারের হাতকে শক্তিশালী করতে বাংলাদেশ সরকার নানা সময় নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করছে এবং আমরা সরকারের সাথে সহযোগীতা করে যাচ্ছি। ইউনিয়নের গ্রাম আদালত যদি সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে পরিচালিত হয় তাহলে আদর্শ ইউনিয়নে রূপ নিতে বাধ্য। কারণ প্রত্যেকটি নাগরিক সচেতন হবে যার উপকার হিসেবে পাব শক্তিশালী ইউনিয়ন ও আসবে সার্বিক সমৃদ্ধি। গ্রাম আদালতের উপকারিতা নিয়ে দীর্ঘ বক্তব্যে গ্রামীণ জনগনকে দেওয়ানি ও ফৌজদারি মামলার বিষয়ে অবগতও করা হয়। স্বল্প সময়ে অল্প খরচে স্থানীয় ছোট-খাট বিরোধ সমাধানে ভূমিকা রেখে যাচ্ছে গ্রাম আদালত। ফৌজদারী মামলার জন্য ১০ টাকা ফিস ও দেওয়ানি মামলার জন্য ২০ টাকা ফি ধার্য করা হয়। অন্যান্যদের মধ্যে ইউপি সচিব নুরুল আলম, গ্রাম আদালতের উপজেলা সমন্নয়কারী হেলাল উদ্দিন, দফাদার জহুলাল দাশ, গ্রাম পুলিশ জহিরুল ইসলাম,নুরুল আলম মনু,ফরিদ আলম, শফিকুর রহমান, মোঃ জালাল শাফিয়া বেগমসহ এলাকার অনেক নারী পুরুষ উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •