বিশেষ প্রতিবেদক:
টেকনাফে জেলেদের জালেধরা পড়েছে ৩৫ কেজি ওজনের একটি লাল পোয়া মাছ। ৫ জানুয়ারি শনিবার বিকালে টেকনাফ উপকূলবর্তী সাগরে মাছটি ধরা পড়ে। মাছটি বিক্রি করা হয় আড়াই লাখ টাকায়।

জেলেরা জানান, শনিবার ভোরে স্থানীয় আবদুল গণি মাঝিসহ অন্যান্য জেলেরা প্রতিদিনের মতো ইন্ঞ্জিন চালিত নৌকা নিয়ে বঙ্গোপসাগরে মাছ শিকার করতে যান। সাগরে জাল ফেলার দীর্ঘ সময়ের পর বিকালে জাল তুললে একটি বড় লাল পোয়া মাছ পাওয়া যায়। মাছটির ওজন ৩৫ কেজি। মাছটি নিয়ে দ্বীপের জেটি ঘাটে ফিরে আসার পর উৎসুক জনতার ভিড় জমে যায়। পরে মাছটি আড়াই লাখ টাকায় কিনে নেন স্থানীয় মাছ ব্যবসায়ী আবদুর শুক্কুর।  তিনি বলেন, মাছটি জেলেদের কাছ থেকে আড়াই লাখ টাকায় ক্রয় করেন। চট্টগ্রামের এক ব্যবসায়ীর কাছে মাছটি বেশি টাকায় বিক্রি করার জন্য যোগাযোগ চলছে।

টেকনাফ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন জানান, পোয়া মাছের পেটের ভেতর ‘পদনা’ নামে বিশেষ অংশ থাকে। স্থানীয় ভাষায় এটাকে ‘ফুলা’ বলে। যা ওষুধ তৈরিতে ব্যবহৃত হয়। এই ‘পদনা’ শুকিয়ে ওষুধের কাঁচামাল হিসেবে বিদেশে উচ্চমূল্যে বিক্রি করা হয়। ফলে পোয়া মাছের দামের চাহিদা বেশি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •