চকরিয়া প্রতিনিধি:

চকরিয়া উপজেলার বদরখালীতে সমিতির নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ভার্চু স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠের প্রস্তাবিত জমি, চলাচলের রাস্তা ও নালা দখল করে দুর্বৃত্তরা দোকান ঘর নির্মাণ করেছে। গতকাল সোমবার স্থানীয় একদল দুর্বৃত্তরা এ অবৈধ দখল শুরু করে। কিন্তু তা বিধিলঙ্ঘন করে গতকাল মঙ্গলবার ভোর রাতে আবারও তারা রাস্তা ও নালাসহ স্কুলের জন্য জমি দখল শুরু করে তারা। এতে বাধা দিলে কয়েকজন আহত হয়েছে।

সমিতি ও চকরিয়া থানার পরামর্শে স্কুল কর্তৃপক্ষ দখলদারকে নিষেধ করতে গেলে তাদের উপর হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। ওই দিন বিষয়টি স্থানীয়রা বদরখালী সমবায় কৃষি ও উপনিবেশ সমিতিকে লিখিত অভিযোগে জানালে কাজ বন্ধ রাখার জন্য তাতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে।

আহতরা হলেন, ভার্চু স্কুল অ্যান্ড কলেজের কো-অর্ডিনেটর মাস্টার নুরুন্নবী (৬৫), স্কুল পক্ষের লোক মনোয়ারা বেগম (২৫), ইয়াছিন আরাফাত (১৮) ও আব্দুল্লাহ আল মামুন (২২) গুরুতর আহত হয়েছে। আহতদের চকরিয়া উপজেলা সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বদরখালী সমিতির নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে গতকাল ভোর ৫টা থেকে দুর্বৃত্তরা দোকান নির্মাণ কাজ শুরু করে। এরপর স্কুল পক্ষের লোকজন নিষেধ করলে তাদের উপর হামলা চালায় স্থানীয় ঠুটিয়াখালী পাড়ার বাসিন্দা মৃত ছৈয়দ আহমদ আন্টুর পুত্র আমির হোসেন (৪০) ও মোহাম্মদ হোছাইন (৫০), মেয়ে জাহানারা বেগম (৩৭), তাঁর স্বামী নুরুল ইসলাম (৪০), তাদের ছেলে মো. সাইফুল্লাহ (১৯), মৃত ছৈয়দ আহমদ আন্টুর স্ত্রী হাজেরা বেগম (৬৫), ওই এলাকার স্থানীয় দেলেয়ার হোসেনের স্ত্রী জয়তুন্নাহার মানু (৩২) সহ অন্তত ২৫ জন লোক। তাঁরা স্কুল পক্ষের কয়েকজনকে আহত করলে পরে স্থানীয় গিয়ে স্কুলের জমি, রাস্তা ও নালার উপর নির্মিত দোকানের একাংশ গুড়িয়ে দেয়। এ ঘটনায় গতকাল ভার্চু স্কুল অ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত কো-অর্ডিনেটর মাস্টার নুরুন্নবী বাদী হয়ে চকরিয়া থানায় লিখিত এজাহার দায়ের করেছেন।

মাস্টার নুরুন্নবী বলেন, স্থানীয় স্কুল বিরোধী নানা ষড়যন্ত্র এ পর্যায়ে স্কুলের জন্য কেনা জমির একাংশ, চলাচলের রাস্তা ও নালা অবৈধ দখল করেছে। চকরিয়া থানা পুলিশ ও সমিতির কর্মকর্তার মৌখিকভাবে নিষেধ করতে গেলে তারা আমাদের উপর হামলা চালায়।

জানতে চাইলে অভিযুক্ত মোহাম্মদ হোছাইন বলেন, আমরা নোটিশ পাওয়ার পর থেকে সে জায়গায় আর কোন কাজ করিনি। তবে আজ ভোরে স্কুল পক্ষের লোকজন গিয়ে দোকানটি ভেঙ্গে দিয়েছে।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী, ‘বদরখালীতে স্কুলের জমি দখলের ঘটনা স্কুল কর্তৃপক্ষ থানায় লিখিত এজাহার দায়ের করেছেন। তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •