বার্তা পরিবেশক :

শেখ হাসিনাকে পুনরায় ক্ষমতায় নেয়াই আমার প্রধান লক্ষ্য। সে লক্ষ্যে নিয়ে আমি নির্বাচন করে যাচ্ছি। আমি নির্বাচিত হলে তাঁর উন্নয়ন প্রতিশ্রুতির আলোকে মহেশখালী-কুতুবদিয়াকে সাজাবো। মহেশখালী ও কুতুবদিয়া সাধারণ জনগণের ভালোবাসা নিয়ে আমি নির্বাচিত হবো আমি শতভাগ আশাবাদী। আমার বিশ্বাস আপনারা আমাকে ভোট দেয়ার জন্য অধীর অপেক্ষায় রয়েছেন। আমি নির্বাচিত হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আর্শিবাদ নিয়ে বাকি জীবনটা আপনাদের সাথে কাটাতে পারবো। সেই সুযোগটা দেবেন আমাকে।
মঙ্গলবার মহেশখালীর বড়মহেশখালীতে গণসংযোগোত্তর পথসভায় মাছ মার্কার প্রার্থী ড. আনসারুল করিম জনগণের উদ্দেশ্যে একথা বলেন।
তিনি বড় মহেশখালীর মুন্সির ডেইল রোআইঙ্গা বাজার ও বড় ডেইল রাস্তার মাথায় পৃথক দুটি পথ সভায় বক্তব্য রাখেন।
এসময় ড. আনসারুল করিম আরো বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলেও তাঁর দেয়া সুযোগ-সুবিধা মহেশখালী-কুতুবদিয়ার মানুষ পায়নি। অনেক সম্ভাবনা থাকলেও এখানকার শিক্ষা ব্যবস্থা উন্নয়নের কোনো উদ্যোগ নেয়া হয়নি। মাদক ব্যবসায়ীরা ক্ষমতার ছত্রছায়ায় থেকে দুই উপজেলাকে মাদকের আখড়ায় পরিণত করেছে। আমি নির্বাচিত হলে মাদক নির্মূল করে শিক্ষাকে প্রসারিত করবো। শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতিকে জনগণের জন্য বাস্তবায়ন করবো।

বড়মহেশখালীতে গণসংযোগকালের ড. আনসারুল করিমের সাথে হাজার হজার মানুষ গণসংযোগে অংশ নেয়। তিনি যেখানে গেছেন সেখানে জনতার ঢল নামে। তাকে পেয়ে জনগণ তাঁর সান্নিধ্য পেতে করার হুমড়ি খেয়ে পড়েন। এসময় জনতার আগামী ৩০ ডিসেম্বর মাছ মার্কায় ভোট দিয়ে ড. আনসারুল করিমকে জয়ী করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। গণসংযোগ ও পথসভায় তাঁর সাথে ছিলেন স্থানীয় গণমান্য লোকজনসহ অগণিত মানুষ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •