সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
রামু ফতেখারকুলে বিএনপি অফিসে ব্যাপক ভাঙচুর ও নেতাকর্মীদের উপর হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার (১২ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত পৌনে ১১ টার দিকে ঘটনাটি ঘটে। এতে অন্তত ৩০ নেতাকর্মী আহত হয়েছে। আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে বলে জানা গেছে।
কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের বিএনপির মনোনীত ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী লুৎফুর রহমান কাজল অভিযোগ করে বলেছেন, নির্বাচনী প্রচারণার কাজ শেষে নেতাকর্মীরা অফিসে বসলে অতর্কিত স্বশস্ত্র হামলা করে আওয়ামী লীগের ক্যাডারেরা। হামলাকালে খোদ আওয়ামী লীগের নৌকার প্রার্থী সাইমুম সরওয়ার কমল উপস্থিত ছিলেন। তার নিদের্শেই ন্যাক্কারজনক হামলার ঘটনাটি ঘটে। মারধর ও লাঞ্চিত করা হয়েছে দলের অনেক সিনিয়র পর্যায়ের নেতাকে। এ সময় অফিসের সামনের থাকা ৭টির মতো মোটর সাইকেল হাতুড়ি দিয়ে ভাঙচুর করা হয়েছে। ভাঙচুর করেছে অফিসও।
তিনি বলেন, বিএনপির গণজোয়ার দেখে সরকারী দলের মাথা খারাপ হয়ে গেছে। তারা জনরায়ে ভীত হয়ে সন্ত্রাসের পথ বেছে নিয়েছে। বিএনপি সমর্থকদের উপর পরিকল্পিত হামলা চালানো শুরু করেছে। ধানের শীষের পক্ষে প্রচারণা না চালাতে হুমকি ধমকি দিচ্ছে।
সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের স্বার্থে নির্বাচন কমিশনসহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ধানের শীষের প্রার্থী লুৎফুর রহমান কাজল।

এদিকে, আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীদের হামলায় আহতদের দেখতে জেলা সদর হাসপাতালে ছুটে যান এমপি প্রার্থী লুৎফুর রহমান কাজল। চিকিৎসাধীন সবার খোঁজ খবর নেন তিনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •