cbn  

বিশেষ সংবাদদাতা :

কক্সবাজারে চকরিয়ায় ৪টি চোরাই গরুসহ চোর সিন্ডিকেটের ২মহিলা সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে চকরিয়া থানা পুলিশ। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে কোনাখালী ইউনিয়নের মরণঘোনা পূর্ব পাড়া থেকে চোরাই গরু উদ্ধার করা হয়। এসময় চোর সিন্ডিকেটের ২ মহিলা সদস্যকে মাতামুহুরী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই অরুণ কুমার চাকমা তাদের আটক করেছেন।

সূত্র জানায়, দক্ষিণ চট্টগ্রামে একটি বিশাল চোর সিন্ডিকেট চকরিয়া উপজেলায় রয়েছে। তারা পুলিশি অ্যাকশন এড়াতে এখন নতুন কৌশল অবম্বন করে চুরি কাজে মহিলাদের ব্যবহার করছেন। ফলে আড়ালে থেকে গরু চোরের মুল হোতারা পার পেয়ে যাচ্ছেন।

এঘটনা গরুর মালিক পেকুয়া উপজেলার গোয়াখালীর মাতব্বর পাড়ার আবু আকতারের পুত্র মোহাম্মদ ইকবাল বাদী হয়ে চকরিয়ায় থানায় চোর সিন্ডিকেটের ২মহিলা আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন। আটককৃতরা হলেন, চকরিয়া পৌরসভার করাইয়াঘোনা নবাব মিয়ার স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৪২) ও একই এলাকার মৃত আবুল কাশেমের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম প্রকাশ ছমুদা বেগম।

গরুর মালিক মোহাম্মদ ইকবাল বলেন, পেকুয়া উপজেলা গোয়াখালী মাতব্বর পাড়ার বিলে চরণ ভূমিতে আমার পালিত ৪টি গরু ছেড়ে দিলে সন্ধ্যার পর থেকে গরুগুলো খোঁজ পাওয়া যায়নি। পরে অনেক খোঁজাখুঁজির পর গোপন সূত্রে খবর পেয়ে কোনাখালীর মরণঘোনার এক বাড়িতে গরুগুলোর সন্ধান পাওয়ার পর আইনী সহায়তার মাধ্যমে উদ্ধার করি।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, পেকুয়া চুরি হওয়া ৪টি গরু থানার উপপরির্দশক অরুণ কুমার চাকমা কোনাখালী ইউনিয়নের মরণঘোনা থেকে উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় চোর সিন্ডিকেটের ২মহিলা সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এব্যাপারে গরুর মালিক বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •