cbn  

-ফাইল ফটো

সিবিএন ডেস্ক:
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের নিজ দলের কর্মীদের উদ্দেশে বলেছেন, এখন আর ভাষণ দিয়ে লাভ নেই, অ্যাকশনে যেতে হবে। অনেক কাজ, অনেক ক্যাম্পেইন করতে হবে।

আজ বুধবার রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগের সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সভা হয়। সভা শুরু হওয়ার আগে ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেন।

গণমাধ্যমকে নিরপেক্ষে ভূমিকা পালনের আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, গণমাধ্যমের একটি অংশ আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে ক্যাম্পেইন করছে। মনে হচ্ছে, তারাই ঐক্যফ্রন্ট। এগুলো করে জনগণকে বিভ্রান্ত করা যাবে না। এমন করলে গণমাধ্যমের বিশ্বাসযোগ্যতা নষ্ট হবে।

ওবায়দুল কাদের দাবি করেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনী প্রচারের সময় গতকাল আওয়ামী লীগের দুই নেতা-কর্মীকে হত্যা করেছে বিএনপি। এর প্রমাণ আছে। তিনি বলেন, সহিংসতা কারা করছে? দুজন কালকে মারা গেছে, একজন নোয়াখালীতে, আরেকজন ফরিদপুরে।

বিএনপির মহাসচিব ফখরুল ইসলামের উদ্দেশে মন্ত্রী কাদের বলেন, ফখরুল সাহেব, সহিংসতার কথা বলছেন, নাশকতার কথা বলছেন, সরকারি দলের নিপীড়নের কথা বলছেন—এই নিপীড়ন কারা করছে? গতকাল দুটি খুন হয়েছে, দুটি খুনেই বিএনপি আওয়ামী লীগের কর্মীদের হত্যা করছে। এটার প্রমাণ আছে, এটা কোনো সাজানো, বানানো কথা নয়।

নেতিবাচক রাজনীতির জন্য বিএনপি দিনে দিনে সংকুচিত হচ্ছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, পল্টনে সহিংসতা দিয়ে নির্বাচনে সহিংসতা শুরু করেছে বিএনপি। পল্টনের যে তাণ্ডব, সেই তাণ্ডব এখন বিএনপি চালাচ্ছে। বিএনপি আবারও প্রমাণ করল তারা সন্ত্রাসী দল।

মওদুদ আহমদের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘মওদুদ কিন্তু জমাতে পারছেন না। বিএনপির ভাঙা হাট কোথাও জমছে না। অথচ তাঁরা বলছেন গণজোয়ার। আমি বলছি এটাকে গণভাটা। বিএনপির এখন গণভাটা চলছে।’

দলের নির্বাচন পরিচালনার কমিটির কো-চেয়ারম্যান এইচ টি ইমামের সভাপতিত্বে সভায় দলের প্রচার উপকমিটির আহ্বায়ক হাছান মাহমুদসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •