cbn  

সোহরাব হোসেন চৌধুরী:

আজ ১১ ডিসেম্বর কক্সবাজার শত্রু মুক্ত দিবস। আজকের এই দিন পর্যটন নগরী কক্সবাজার বাসীর জন্য এক ঐতিহাসিক দিন। ১৯৭১ সালের এই দিনে বাংলাদেশের মানচিত্র খচিত লাল সবুজের পতাকা কক্সবাজারের মাটিতে উড্ডয়নের মধ্য দিয়ে কক্সবাজারকে পাকিস্তানী হানাদারমুক্ত ঘোষণা করা হয়। সেই দিন থেকে প্রতি বছর ১১ ডিসেম্বর কক্সবাজার জেলায় শত্রু মুক্ত দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে।

সূত্রে জানা যায়, এই দিনে কক্সবাজারের মাটিতে শত্রু মুক্ত ঘোষনা করেন কক্সবাজার জেলার যুদ্ধকালীন প্রথম সশস্ত্র মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার, জয়বাংলা বাহিনী ৭১ প্রধান, জেলা ছাত্রলীগ, জেলা যুবলীগ, সদর আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ জাতীয় কমিটির প্রাক্তন মাননীয় সদস্য,

বঙ্গবন্ধুর অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ সহচর বীর মুক্তিযোদ্ধা কামাল হোসেন চৌধুরী পাবলিক লাইব্রেরীর মাঠে ১১ ডিসেম্বর সকাল ১০টায় আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে স্বাধীনতাকামী হাজারো জনতার উদ্দেশ্যে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা কক্সবাজারের মাটিতে তিনিই সর্বপ্রথম উত্তোলণ করেন এবং কক্সবাজার শত্রু মুক্ত ঘোষনা করে দিক নির্দেশনা মূলক ভাষণ প্রদান করেন। এ উপলক্ষে কক্সবাজারে মুক্তিযোদ্ধাগণ সহ বিভিন্ন সংগঠন নানা আয়োজনে কক্সবাজার শক্র মুক্ত দিবস পালন করবেন বলে জানা গেছে। কক্সবাজারে সর্বপ্রথম জাতীয় পতাকা উত্তোলণকারী কামাল হোসেন চৌধুরী বলেন,একটি স্বাধীনতা বিরোধী মহল স্বাধীনতার ৪৭ বছরের ইতিহাসকে মুছে ফেলার চেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। তাদের বংশধররাও স্বাধীনতার বিরুদ্ধে কাজ করছে নিরবে।

৪৭ বছর পরে ইতিহাস বিকৃতির অপচেষ্টাকে প্রতিহত করতে দেশের সকল মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিক, মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তিসহ সবাইকে সজাগ থাকতে হবে।

বিশেষ স্মরণীয় যে, ১৯৭১ সালে ৩রা মার্চ পাবলিক হল মাঠের আমতলায় তাঁরই নেতৃত্বে পাকিস্তানের পতাকা পুড়িয়ে সেই দিনও তিনি বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করেন। ১৯৭১ সালের ২৬শে মার্চ ভোর ৬টায় মাইক যোগে কক্সবাজার জেলায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পক্ষে কামাল হোসেন চৌধুরী স্বাধীনতার প্রথম ঘোষক ও প্রচারক।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •